Connect with us

    Entertainment

    Soumitrisha Kundoo: যারা এতোদিন মিঠাইকে ‘দেবী’র আসনে বসিয়ে পূজো করেছেন, তাদের ভুল ভেঙে যাবে! সমালোচনামূলক কমেন্ট ডিলিট করেছেন সৌমীতৃষা! ক্ষেপে উঠল মিঠাই ভক্ত

    Published

    on

    Mithai Soumitrisha 3

    বাংলা টেলিভিশনের জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘মিঠাই’। দু’বছরেরও বেশিদিন ধরে চলে আসছে এই ধারাবাহিক। দুষ্টু – মিষ্টি মেয়ের চটাং চটাং কথা, ভাঙাচোরা ইংরেজি শব্দ, অসাধারণ অভিনয় দক্ষতা জনপ্রিয় করেছিল মিঠাইকে। ধারাবাহিকের বাইরে গিয়েও মিঠাইকে পছন্দ অনেকেরই। তাঁর মিষ্টি মিষ্টি কথার ধাঁচ পাগল করেছে ভক্তদের।

    শুধু তাই নয়, তাঁর ব্যবহারেও মুগ্ধ অনেকেই। কিন্তু হঠাৎ এমন কি হল? যার জন্য মিঠাই-এর উপর খেপে উঠল ভক্তরাই? জানা গেল, মিঠাই তাঁর ভক্তের কম্যান্ট মুখের উপর ডিলিট করে দিয়েছেন। তাও একবার নয়, অধিকবার। শুধু সেখানেই থেমে যাননি তিনি। কম্যান্ট ডিলিটের পাশাপাশি সেই ভক্তকে নিজের প্রোফাইল থেকে ব্লক করে দিয়েছেন।

    তবে কি সেই ভক্তের সঙ্গে ছিল কোনও ব্যক্তিগত সম্পর্ক? যার জেরে ব্লক করে দিতে বাধ্য হলেন। এরপরই সেই ভক্ত রেগে গিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করলেন। জানালেন সমস্ত ডিটেলস। যে ভক্ত একসময় মিঠাই-এর উপর ফিদা ছিলেন, তাঁকেই এখন ঘৃণার চোখে দেখতে বাধ্য হলেন। তবে এবার আসি আসল কথায়। আসলে কি হয়েছিল মিঠাই আর ভক্তের মধ্যে?

    সম্প্রতি সৌমীতৃষা ইন্সটাগ্রামে একটি ছবি আপলোড করেন। যেটা দেখে অনেকের মনে হয়েছিল মিঠাই-এর লুকটা ওভার মেকআপ। আর তা লিখেই সেই ভক্তও একটি কমেন্ট করেন মিঠাই-এর ছবিতে। কিছুক্ষণের মধ্যেই সেই কমেন্ট ডিলিট হয়ে যায়। ভক্তটি কিছু না বুঝতে পেরে আবার দ্বিতীয় কমেন্ট করেন। আর তারপরও তিনি দেখেন সেই কমেন্টটিও আবার ডিলিট হয়ে গিয়েছে। তখন তিনি বুঝতে পারেন, কমেন্টটি মিঠাই নিজে ডিলিট করেছেন।

    WhatsApp Image 2023 04 27 at 11.15.31

    তবে শুধু ডিলিট নন, সেই ভক্তকে ব্লকও করে দিয়েছেন। যদিও আর তাঁকে ভক্ত বলা যাবে না। মিঠাই-এর উপর বিশাল রেগে একটি পোস্ট করেন তিনি। সেখানে সমস্ত ঘটনা জানিয়ে তিনি লেখেন, যারা এতোদিন মিঠাইকে ‘দেবী’র আসনে বসিয়ে পূজো করেছেন। যারা ভেবেছেন সৌমীতৃষা কখনো কোনোও দোষ-ত্রুটি করতেই পারেন না, তারা সেটা ভুল ভাবছেন। তিনি আরও বলেন, যে তাঁর সেই কমেন্ট কোনও পার্সোনাল এটাক, বডি শেমিং অথবা ট্রোল কিছুই ছিলো না৷ সামান্য মেকাপ নিয়ে একটা ওপিনিয়ন ছিল৷