Bangla SerialEntertainment

“ও যা ছোঁয় তাই সোনা হয়!” আলাদা থাকা সত্ত্বেও রচনার প্রশংসায় পঞ্চমুখ স্বামী প্রবাল বসু

রাজনীতির ময়দানে নেমেই ছক্কা হাঁকালেন রচনা। নবাগতা হয়েও প্রচারে কোনরকম ত্রুটি রাখেননি তিনি। নিজের অভিনয় কায়দায় তিনি চাইয়ে গেছেন প্রচার। সামাজিক মাধ্যমে বারবার ভাইরাল হয়েছে তার বিভিন্ন কার্যকলাপ, মন্তব্য। কখনও সম্মুখীন হয়েছেন ট্রোলিংয়ের আবার কখনও তিনি প্রশংসিত হয়েছে নেটিজেনদের মাঝে। তবুও ছাড়েননি হাল। জোর কদমে তিনি চালিয়ে গেছে প্রচারের কাজ। আর অবশেষে পরিশ্রমের ফলও হাতে নাতে পেয়েছেন অভিনেত্রী। এককালের সহকর্মী এবং বান্ধবী লকেট চট্টোপাধ্যায়কে হারিয়ে শেষ হাসি হেসেছেন রচনা ব্যানার্জী (Rachana Banerjee)

রচনা ব্যানার্জীর জয় নিয়ে কি বললেন স্বামী প্রবাল বসু?

স্ত্রীর জয়ে গর্বিত প্রবাল বসু। তবে তিনি জানিয়েছেন তিনি নাকি আগেই আঁচ পেয়েছিলেন যে এবার তার স্ত্রী রচনাই বিজয়ী হবেন। ভোটের প্রচারে সময় সর্বদাই স্ত্রীর পাশে ছিলেন তিনি। এমনকি ৪ জুন ভোট গণনার সময় তিনি সারাক্ষণ ছিলেন স্ত্রীর পাশে। গণনায় শেষে দিদি নম্বর ওয়ান বিজয়ী হয়েছে জানতে পেরে আনন্দ, উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়েন তিনি। স্ত্রীর জয় নিয়ে সংবাদ মাধ্যমকে কি বলেছেন প্রবাল বসু?

গতকাল একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের কাছে নিজের মনের কথা ব্যক্ত করেছেন প্রবাল। সাক্ষাৎকারে স্ত্রীর জয় নিয়ে রচনা ব্যানার্জীর স্বামী বলেছেন “ও পাশেই আছে। এখন জেলাশাসকের অফিসে রয়েছি আমরা। ভীষণ ভালো লাগছে। এই অনুভূতি ভাষায় বোঝানো যাবে না। আসলে রচনা এমনই। ও যা ছোঁয় সেটাই সোনা হয়ে যায়। যেখানে হাত দিয়েছে সেখানেই সাফল্য পেয়েছে।”

একই সঙ্গে রচনা ব্যানার্জীর স্বামী প্রবাল বসু জানান এখন তিনি গর্বিত স্বামী। প্রবাল বসুর মতে, “গর্বে আমার বুক ফুলে যাচ্ছে।” তবে প্রসঙ্গত বলে রাখা ভালো, রচনা ব্যানার্জী এবং প্রবাল বসু একসঙ্গে থাকেন না। অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জী নিজেই একবার সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছিলেন তিনি কখনও ‘ভালো স্ত্রী’ হতে পারেননি। তবে আলাদা থাকলেও আইনতভাবে কখনই স্বামী প্রবাল বসুর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়নি রচনার। তাদের মতে অমিলের কারণেই আলাদা হয়ে গেছেন তারা।

রচনা ব্যানার্জীর ছবি দেওয়া জামা পড়ে প্রচার করেছেন প্রবাল বসু

তবে অন্যসময় আর যাই হোক, ভোটের লড়াইয়ে স্ত্রী রচনা ব্যানার্জীর পাশে সবসময় থেকেছেন প্রবাল বসু। এমনকি তৃণমূল কংগ্রেসের চিহ্ন সহ রচনা ব্যানার্জীর ছবি দেওয়া জামা পড়ে স্ত্রীর সঙ্গে জোর কদমে প্রচার চালিয়ে গেছেন তিনি। প্রসঙ্গত, এবার দিদি নম্বর ওয়ানের পাশপাশি হুগলির মানুষের হয়ে লোকসভার কথা বলবেন রচনা। তবে প্রবাল বসুর এরূপ মন্তব্য অনেকেরই মনের প্রশ্ন জেগেছে তবে কি পুরোনো সমস্যা ভুলে আবার এক হবেন রচনা ব্যানার্জী এবং প্রবাল বসু?

Ruhi Roy

রুহি রায়, গণ মাধ্যম নিয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাশ। সাংবাদিকতার প্রতি টানে এই পেশায় আসা। বিনোদন ক্ষেত্রে লেখায় বিশেষ আগ্রহী। আমার লেখা আরও পড়তে এখানে ক্লিক করুন।