জয়েন গ্রুপ

বাংলা সিরিয়াল

এই মুহূর্তে

Food

রবিবারের মেগা দুপুরে পাতে পড়ুক প্যায়ারে কাবাব! আপনার জন্য রইল রেসিপি

রবিবার বলে কথা স্পেশাল খাবার না হলে হয়! সপ্তাহান্তে এই একটা ছুটির দিন সবাই চান আমোদে-আহ্লাদে ভালো খাবার খেয়ে কাটাতে।‌ আর তাই এই বিশেষ দিনে অবশ্যই রান্না করে ফেলা উচিত কিছু বিশেষ পদ। তা বাঙালি বাংলা খাবারের উপর যতটা আকর্ষণ বোধ করে ততটাই কিন্তু বোধ করে মোঘলাই খাবারের ওপরেও। আর তাই রবিবারের এই স্পেশাল দিনে বানিয়ে ফেলতে পারেন উপাদেয় প্যায়ারে কাবাব। কীভাবে বানাবেন? জেনে নিন প্রণালী

উপকরণ:

বোনলেস চিকেন: ৫০০ গ্রাম

ছাতু: ২-৩ টেবিল চামচ

টক দই: আধ কাপ

কাঁচালঙ্কা বাটা: ১ টেবিল চামচ

আদা-রসুন বাটা: ২ টেবিল চামচ

ধনেপাতা কুচি: ৩ টেবিল চামচ

গোলমরিচ গুঁড়ো: ১ টেবিল চামচ

গরম মশলা গুঁড়ো: ১ চা চামচ

লঙ্কা গুঁড়ো: ১ টেবিল চামচ

কবাব মশলা: ১ টেবিল চামচ

সর্ষের তেল: ২ টেবিল টামচ

নুন: স্বাদ অনুযায়ী

কাঠি বা শিক: ৫টি

কয়লা: ১ টুকরো

রন্ধন প্রণালীঃ প্রথমেই চিকেনের টুকরোগুলি ভালো করে ধুয়ে মিক্সিতে ঘুরিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন। এ বার একটি পাত্রে সেই মিশ্রণটি দিয়ে তার মধ্যে একে একে টক দই, গোলমরিচ গুঁড়ো, গরম মশলা গুঁড়ো, শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো, আদা-রসুন বাটা, কাবাব মশলা, কাঁচা লঙ্কা কুচি, ধনেপাতা কুচি, নুন, সর্ষের তেল দিয়ে ভাল করে মাখিয়ে রাখুন।

এ বার চিকেনের মিশ্রণটি ঢাকা দিয়ে ফ্রিজে তুলে রাখুন ২-৩ ঘণ্টার জন্য। এবার ফ্রিজ থেকে বার করে মিশ্রণটি আঁট করার জন্য পরিমাণ মতো ছাতু যোগ করুন। একটি ছোট পাত্রে গরম কয়লাটি রাখুন। আর তারপর পাত্রটি মূল মিশ্রণের মধ্যে রেখে কয়লার উপর ঘি ঢেলে পাত্রের মুখটি ভাল করে ঢেকে দিন। এতে ঘি ও কয়লার পোড়া গন্ধ দুই-ই মাংসের মিশ্রণে মিশে যাবে।

এ বার একটি শিক বা কাঠিতে তেল মাখিয়ে নিয়ে মাংসের মিশ্রণটি খানিকটা করে গেঁথে নিয়ে শিকের গায়ে কবাবের মতো চেপে চেপে গেঁথে নিন।‌ এবার গ্রিল চিহ্ন যুক্ত প্যানে সামান্য মাখন নিয়ে ভাল করে তাতিয়ে নিন। আবার গেঁথে রাখা কবাবগুলি ভালো করে সেঁকে নিলেই তৈরী প্যায়ারে কাবাব।‌ পুদিনার চাটনি আর পেঁয়াজের সঙ্গে জমে যাবে কিন্তু।

Titli Bhattacharya