Bangla SerialEntertainment

মায়ের মৃত্যুতে দূরত্ব মিটল তন্বী-সৌমীতৃষার! ছুটে গেলেন সৌমীতৃষা, ফের সম্পর্ক জুড়ল তন্বীর সঙ্গে!

একসময়কার বাংলার অতি জনপ্রিয় ধারাবাহিক ছিল মিঠাই। ধারাবাহিকটি শুরু থেকেই মন জয় করেছিল দর্শকদের। সেই ধারাবাহিকের মাধ্যমেই সকলের রাতারাতি জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন অভিনেত্রী সৌমীতৃষা কুন্ডু (Soumitrisha Kundoo)। ধারাবাহিকে চলাকালীন সকলের সঙ্গেই বেশ মাখোমাখো সম্পর্ক ছিল তার। মিঠাই পরিবারের সঙ্গে ঘুরতে যাওয়া, ডিনার সবকিছুতেই উপস্থিত থাকতেন অভিনেত্রী। সামাজিক মাধ্যমে মিঠাই পরিবারের সঙ্গে শেয়ার করতেন রীল, ছবি। ধারাবাহিকের সদস্যদের মধ্যে এত গভীর সম্পর্ক দেখে দারুণ খুশি ছিলেন নেটিজেনরাও।

সৌমীতৃষা কুন্ডুকে ইনস্টাগ্রাম থেকে আনফলো করার বিষয়ে কি বলেছিলেন অভিনেত্রী তন্বী লাহা রায়?

তবে সময়ের সঙ্গে ফ্যাকাশে হয়ে যায় সেই সম্পর্ক। ধারাবাহিক শেষ হওয়ার কিছু মাস আগে থেকেই শোনা যায় উচ্ছেবাবুর সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হয়ে গেছে মিঠাই রানীর। একসঙ্গে আগের মতো দেখা যেত না তাদের। তারপর যত সময় এগিয়েছে ততই অভিনেত্রীর সঙ্গে ধারাবাহিকের সকল সদস্যদের সম্পর্কের সুতো আলগা হয়ে গেছে। বিষয়টি নিয়ে শোরগোল তখন শুরু হয় তখন ধারাবাহিকে সৌমীতৃষার সবচেয়ে কাছের বন্ধু তন্বী লাহা রায়। ইনস্টাগ্রাম থেকে আনফলো করেন সৌমীতৃষাকে।

বলাই বাহুল্য, আর এই থেকেই দৃঢ় হয় যায় জল্পনা। অভিনেত্রী তন্বী লাহা রায় এই প্রসঙ্গে জানিয়েছিলেন তখন প্রয়োজন ছিল তাই ফলো করেছিলেন আর এখন প্রয়োজন নেই তাই আনফলো করে দিলেন। এছাড়াও অভিনেত্রীর মতে “আমাদের মিঠাইয়ের একটা গ্রুপ আছে। সেখানে সবাই মোটামুটি অ্যাকটিভ থাকে। যখন কোথাও ঘোড়ার পরিকল্পনা হয় সেখানেই কথা হয়। যার সময় হয় আসে সময় নেই সে আসেনা।” অভিনেত্রীর মন্তব্য সম্পর্ক তিক্ততা স্পষ্ট হয়ে ছিলেন নেটিজেনদের কাছে।

তারপর মিঠাইয়ের গেট টুগেদার হোক বা ডিনার পার্ট কোথাও আর চোখে পড়েনি মিঠাই। এমনকি সম্প্রতি অভিনেতা আদৃত রায় এবং কৌশাম্বী চক্রবর্তীর বিয়েতে গোটা মিঠাই পরিবার উপস্থিত থাকলেও উপস্থিত ছিলেন না অভিনেত্রী। সেই অভিনেত্রীর অনুপস্থিতিকে ঘিরে নানা বিতর্কও শোনা গিয়েছিল নেট দুনিয়ায়। আদৃতের বিয়েতে অভিনেত্রীর সৌমীতৃষার অনুপস্থিতি ঘিরে ভক্তরা অনেকেই বলেছিলেন কটাক্ষ করে বলেছিলেন যার জন্য এত জনপ্রিয়তা তাকেই বুঝে গেলেন সবটাই স্বার্থপর।

আরো পড়ুন: অবশেষে ধরা পড়ল ঈশিতা! জয়িতার আসল পোস্টমর্টেম রিপোর্ট পেয়ে ঈশিতার পর্দা ফাঁস করল ফুলকি

তবে তারই মাঝে অভিনেত্রী তন্বীর জীবনে নেমে এল দুঃসময়। মাতৃহারা হলেন অভিনেত্রী। মৃত্যুর সময় মায়ের হাত শক্ত করে ধরে রেখেছিলেন অভিনেত্রী। ১৪ মে নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে মায়ের মৃত্যুকে ঘিরে একটি বেদনাদায়ক পোস্ট করেন তন্বী। অভিনেত্রীর বুক ফাটা যন্ত্রনার পোস্ট পড়ে চোখ ভিজেছেন অনেকেরই। বান্ধবীর মায়ের মৃত্যু সংবাদ শুনেই অভিমানে বরফ গলেছে দুই বান্ধবীর মধ্যে। সহকর্মীর নিজের চরম সংকটের দিনে পুরোনো তিক্ততাকে ভুলে পাশে দাঁড়িয়েছেন সৌমীতৃষা।

তন্বী লাহা রায়ের মায়ের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে খবর নিলেন সৌমীতৃষা, এই বিষয়ে কি বলেছেন অভিনেত্রী

ফোন করে তন্বীর খবর নিয়েছেন অভিনেত্রী। সংবাদ মাধ্যমকে এই বিষয়ে সৌমীতৃষা জানিয়েছেন “ওর মা মারা গেছে। এটা যার সঙ্গে হয়, এর যন্ত্রণাটা শুধুমাত্র সেই বোঝে। এই ক্ষতি কখনও পূরণ হওয়ার নয়। আজকের দিনে আমি আমার পুরোনো বান্ধবী বা সহকর্মীর সঙ্গে যোগাযোগ করব না এটা তো হতেই পারে না। আমি খবর পাওয়া মাত্রই ফোন করেছি। আমার শুটিং না থাকলে আজও যাবো নাহলে কাল তো যাবোই।” দূরত্বের গুঞ্জনের প্রসঙ্গ টেনে অভিনেত্রী এও জানিয়েছেন যে তাদের মতো কখনও কিছুই সমস্যা ছিল না, এখনও নেই। সৌমীতৃষা এবং তন্বীর সম্পর্ক ঠিক হওয়ার খবর শুনে খুশি অভিনেত্রীর ভক্তরা।

Ruhi Roy

রুহি রায়, গণ মাধ্যম নিয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাশ। সাংবাদিকতার প্রতি টানে এই পেশায় আসা। বিনোদন ক্ষেত্রে লেখায় বিশেষ আগ্রহী। আমার লেখা আরও পড়তে এখানে ক্লিক করুন।