Connect with us

    Bangla Serial

    নিম ফুলে ধুমতানানা পর্ব! রাস্তায় দত্ত বাড়ি! কৃষ্ণাকে দায়ী করে ডিভোর্স দিল বাবুউউর বাবা! বেশ হয়েছে বলছেন নেটিজেনরা

    Published

    on

    babur maa and babur baba in neem phuler modhu

    নিম ফুলের মধু (Neem Phuler Modhu) ধারাবাহিকের গত কিছু পর্বে দেখা গিয়েছে, পর্ণা ও সৃজনের শাড়ির কথার কারখানায় আগুন লাগিয়ে দিয়েছিল ঈশা। পর্ণা আগে থেকে এর কিছুটা আন্দাজ করতে পেরেছিল। সে সাবধান করতে চেয়েছিল সৃজনকে। কিন্তু সেই মুহূর্তে পর্ণার কোনও কথাই মানতে চায়নি সৃজন ও কৃষ্ণা।

    পরের এপিসোডে দেখা যায়, রাতে যখন সবাই ঘুমিয়ে পরে, ঠিক সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ঈশা শাড়ির কথার কারখানায় আগুন লাগিয়ে দেয়। ফলত, পুড়ে ছাই হয়ে যায় সমস্ত শাড়ি। ভেঙে পড়ে পর্ণা ও সৃজন। কিন্তু তারা সিদ্ধান্ত নেয় তারা ঘুড়ে দাঁড়াবে। তারপর সৃজনের জ্যেঠুর কাছ থেকে তাদের পারিবারিক মশলার দোকানের দায় ভার চেয়ে নেয় সৃজন।

    তারপরে সে শুরু করে দোকানদারি। কিন্তু পরের পর্বেই দেখা যায় একজন প্রোমোটার এসে দত্ত বাড়ি ভাঙার কথা বলছে। সেই সময় অবাক হয়ে যায় প্রত্যেকে। পরে জানা যায় কৃষ্ণা কিছু টাকার বিনিময়ে দত্ত বাড়ি বন্দক রেখে দেয় তার কাছে। আর ঠিক সময় টাকা ফেরত দিতে না পারায় সে দত্ত বাড়ি ভাঙতে এসেছে।

    এই কথা শুনে ভীষন রেগে যায় সৃজনের বাবা। সে কৃষ্ণাকে ধমক দিয়ে বলে যে, সে তাকে ডিভোর্স দেবে। শুধু তা-ই নয়, দত্ত বাড়িতে আর কোনওদিন ঢুকতে দেওয়া হবে না তাকে। এমন সময় কৃষ্ণা সবাইকে অনুরোধ করে যাতে তাকে বাড়ি থেকে না তাড়ানো হয়। এমনকি পর্ণার কাছেও অনুরোধ জানায় সে। সেই সময় পর্ণা বলে, এতে তার করার কিছু নেই। সে যা ভুল করেছে তার শাস্তি তাকেই ভোগ করতে হবে।

    আরও পড়ুনঃ ইচ্ছে পুতুলে তুলকালাম! জিষ্ণু ও গিনির বিয়ের কথা শুনে, গিনিকে খুনের চক্রান্ত করল রূপের! বাঁচাতে পারবে জিষ্ণু?

    তখন কৃষ্ণা জানায়, মৌমিতা আর ঈশার কথা শুনে সে এই লোন নিতে বাধ্য হয়েছে। লোন নিতে গিয়ে এত চড়া সুদ দেখে সে চলে আসতে চায়। সেই সময় মৌমিতা আর ঈশা তাকে ভুল বুঝিয়ে লোন নিতে বাধ্য করে। এই কথা শুনে আরও বেশি রেগে যায় দত্ত পরিবারের সকলে। কান্নায় ভেঙে পরে সৃজন।