জয়েন গ্রুপ

বাংলা সিরিয়াল

এই মুহূর্তে

প্রথম পাতা

বাংলা সিরিয়াল

টলিউড

বলিউড

হলিউড

রেসিপি

লাইফস্টাইল

অফবিট

ভাইরাল

Bangla Serial

নিজের স্বার্থে শ্যামলীর জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে! অভদ্র ছেলে একটা! অনিকেতকে কটাক্ষ নেটিজেনদের

বর্তমানে জি বাংলার (Zee Bangla)নতুন ধারাবাহিক হল ‘কোন গোপনে মন ভেসেছে’ (Kon Gopone Mon Bhesechhe) ধারাবাহিকটি। নতুন হলেও, নিজের স্লটে বেশ কিছুটা পয়েন্ট নিয়ে টপ করছে এই ধারাবাহিকটি। তাই বোঝাই যাচ্ছে, ধারাবাহিকটি প্রথম থেকেই মন কেড়েছে দর্শকদের। এই ধারাবাহিকে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করছেন অভিনেতা রণজয় বিষ্ণু (Ranajoy Vishnu) ও অভিনেত্রী শ্বেতা ভট্টাচার্য (Sweta Bhattacharjee)।

ধারাবাহিকের গত কিছু পর্বে দেখা যায়, কিঞ্জল একটি নদীর ধারে শ্যামলীকে তার নিজের মনের কথা জানায়। কিন্তু শ্যামলী তাকে বলে, যে সে কিঞ্জলকে ওই নজরে কখনওই দেখেনি। এই বলে,শ্যামলী সেখান থেকে চলে আসার সময় খুলে দেওয়া হয় নদীর লকগেট। আর জলের স্রোতে ভেসে যায় কিঞ্জল। বাড়িতে ফিরে সেই ঘটনা সবাইকে জানায় শ্যামলী। কিন্তু, তার কোনও কথাই বিশ্বাস করে না কিঞ্জলের বাড়ির কেউ। উপরন্তু, তৃষা ও অরুনাভ শ্যামলীর কঠিন শাস্তির দাবী করে।

কিঞ্জলের দুর্ঘটনার কথা শুনে বিদেশ থেকে ফিরে আসে অনিকেত। আর পরিস্থিতির চাপে তাকে বিয়ে করতে হয় শ্যামলীকে। বিয়ের শ্যুটিং হয় একটি লক্ষ্মী নারায়ণ মন্দিরে। শ্যুটিং চলাকালীন তারা এক সাক্ষাৎকারে জানান এই নিয়ে মোট ১৩ বার বিয়ের দৃশ্যে শ্যুটিং করতে হয়েছে শ্যামলী অর্থাৎ শ্বেতাকে। এই নিয়ে মজাও করেন রণজয়। তিনি বলেন এর আগে তিনি শ্বেতার মাকে ঠিক এই কথাটাই বলেছিলেন।

অন্যদিকে, রণজয়ের বিয়ের দৃশ্য নিয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি মাঝে অনেকদিন অভিনয় করিনি আর তাছাড়াও সিনেমায় এত বিয়ের দৃশ্য থাকে না। তাই আমার রিল লাইফে খুব বেশি বিয়ের সিন নেই’ পাশ থেকে শ্বেতা বলেন, ‘ওর এই দুঃখ দেখে মনে হচ্ছে, সিরিয়াল চলাকালীনই রিয়েল লাইফে বিয়ে করে নেবে রণজয়’। সেই প্রসঙ্গেই উঠে আসে টাকার গল্প। দুজনেই সাফ সাফ জানান বিয়ে করতে হলে টাকা লাগবে, যা এখনও তাদের কাছে নেই।

আরও পড়ুন: দুঃসংবাদ! নতুন ধারাবাহিককে স্লট দিতে ঝাঁপ বন্ধ হচ্ছে জনপ্রিয় চ্যানেলের জনপ্রিয় ধারাবাহিকের!

২৫শে জানুয়ারি রাত সাড়ে ৮ টা থেকে সাড়ে ৯ টা পর্যন্ত টিভির পর্দায় আস্তে চলেছে কোন গোপনে মন ভেসেছে ধারাবাহিকের এই মহা পরিণয় পর্বটি। দর্শকরা মুখিয়ে আছেন এই পর্বের জন্য। ধারাবাহিকের আরও কলাকুশলীরা ছিলেন এই পর্বের শুটিং-এ। কিন্তু রিল আর রিয়েল কোনও জীবনেই খুশি নন তারা। রিল লাইফে শ্যামলীর প্রতি হিংসার কারণে। আর রিয়েল লাইফে এত ঠান্ডার মধ্যে শ্যুটিং করতে আসতে হয়েছে বলে। তবে শ্যুটিং এ এসে গরম খিচুড়ি পেয়ে খুশি হয়ে গিয়েছেন প্রত্যেকে।

Pou Chakraborty