Bangla Serial

এ কী কথা! ‘যোগমায়ার’ নায়ক-নায়িকার মধ্যে কথা নেই! সিক্রেট ফাঁস দাদাগিরি মঞ্চে

জি বাংলা (Zee Bangla) জনপ্রিয় নন ফিকশন রিয়েলিটি শো ‘দাদাগিরি’ (Dadagiri)। টেলিপাড়ার বিভিন্ন কলাকুশলীরা সমবেত হন এই রিয়েলিটি শোয়ের মঞ্চে। দিন দিন দাদাগিরি জনপ্রিয়তা ক্রমশই বাড়ছে। সম্প্রতি দাদাগিরির মঞ্চে এসেছিলেন সদ্য শুরু হওয়া নতুন ধারাবাহিক ‘যোগমায়ার’ কলাকুশলীরা। শুধু এলেনই না, মঞ্চে দাঁড়িয়ে দাদার কাছে নালিশ করলেন যোগমায়া ধারাবাহিকের নায়িকা। তাঁর কথায় তাজ্জব হয়ে গেলেন স্বয়ং দাদা নিজেও।

‘ইচ্ছে পুতুল’ শেষ হতে জি বাংলা শুরু হয়েছে নতুন ধারাবাহিক ‘যোগমায়া’। জনপ্রিয় টলি তারকা সৈয়দ আরফিন ও অভিনেত্রী নেহা আমনদীপ অভিনয় করছেন এই ধারাবাহিকে। সৈয়দ বলেন, তিনি চিত্তরঞ্জনের ছেলে। সেখানে জন্ম ও বেড়ে ওঠা। তাঁকে ‘চিত্তরঞ্জনের হৃতিক’ বলা হয়। কারণ, ছোটবেলায় ‘কহো না প্যায়ার হ্যায়’ রিলিজ হওয়ার পর থেকেই অভিনেতা হৃত্বিক রোশন কে ফলো করতে থাকেন নায়ক। তারই ফলশ্রুতি এই বিখ্যাত ডাকলাম।

সাধারণত ধারাবাহিককে নায়ক-নায়িকাদের পর্দায় রসায়ন জমাতে হলে তাদের অফস্ক্রিন সম্পর্কটিও ভালো হওয়া জরুরি। এতে তাদের চরিত্রের রসায়ন আরো গাঢ় হয়। যোগমায়া ধারাবাহিকের ক্ষেত্রে ঘটে যাচ্ছে সম্পূর্ণ অল্প অন্য গল্প। আর এর জন্য দায়ী অভিনেতা আরফিন স্বয়ং।

অভিনেত্রী নেহা দাদাগিরির মঞ্চে সৌরভের কাছে নালিশ ঠোকেন, আরফিন শট ছাড়া তাঁর সঙ্গে কথাই বলেন না। যদিও আরেফিন নিজেও অভিযোগ অস্বীকার করেননি। নায়ক নাকি খুব লাজুক স্বভাবের। চট করে মিশতে পারেন না সবার সঙ্গে। এরপরই সৌরভের সবার প্রশ্ন আসে আরফিনের দিকে।

আরও পড়ুনঃ মিশন কৌশিকী বাঁচাও! ননদকে বড় বিপদ থেকে বাঁচাতে মাঠে নামল জ্যাস সান্যাল! বিরাট চমক জগদ্ধাত্রীতে

দাদা জিজ্ঞেস করেন,আরেফিন কেন মিশুতে কুন্ঠাবোধ করেন? অভিনেতা জানান, ‘হ্যাঁ, একটু লাজুক। আমার একটু খুলতে অসুবিধা হয়। কিন্তু নেহা পাল্টা জানান, অভিনেতার পেটে যেন কথাই নেই, শুধুমাত্র হাই হ্যালো এটুকুই! যদিও বিপাকে পড়ে আরফিন ফের বলেন, “যখন মিশে যাই তখনও অনেক কথা বলি।” তাহলে নেহার সঙ্গে সমীকরণ জমবে কবে? আরেফিন মুচকি হেসে বলেন, “এখনও ওর সঙ্গে কথাই বলিনি ঠিকমতো করে।”

Joyee Chowdhury

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ-এ স্নাতকোত্তর। বিনোদন ও সংস্কৃতি বিভাগই মূল ক্ষেত্র।