জয়েন গ্রুপ

বাংলা সিরিয়াল

এই মুহূর্তে

Bangla Serial

জগদ্ধাত্রীতে ধামাকা! মন্ত্রী তুষারতীর্থ এবং দিভিয়া সেনকে গ্রেফতার করল জগদ্ধাত্রী!

জি বাংলার (Zee Bangla) জনপ্রিয় ধারাবাহিক জগদ্ধাত্রীতে(Jagaddhatri) আসছে মহাধামাকা পর্ব। একের পর এক চমক নিয়ে আসছে জগদ্ধাত্রী। কৌশিকী মুখার্জী ও জগদ্ধাত্রীর ওপর হামলা থেকে শুরু করে পরিবারের লোকেদের ষড়যন্ত্র সব কিছুর বেড়াজাল ভেদ করে জগদ্ধাত্রী এখন আসল খুনীর সন্ধানে মগ্ন। সে জানে সর্ষের মধ্যেই লুকিয়ে আছে ভুত তবে কে আসল অপরাধী সেটা এখনও খুঁজে বের করতে পারেনি জেস সান্যাল ওরফে জগদ্ধাত্রী মুখার্জী।

অবশেষে গ্রেফতার হতে চলেছেন কৌশিকী মুখার্জীর ওপর হামলাকারীরা। জগদ্ধাত্রী সন্দেহের তালিকায় নাম ছিল অনেকই- বৈদেহী মুখার্জী, উত্তরবঙ্গের দেবু দা, মন্ত্রী তুষারতীর্থ তলাপাত্র, উৎসব মুখার্জী আর দিভিয়া সেন। যদিও আসল অপরাধী সন্ধান এখনও করছে সে। ইতিমধ্যেই জগদ্ধাত্রী জানতে পেরেছে কৌশিকী মুখার্জীকে প্রথম গুলিটা করেছিল উৎসব ও দেবুদার ভাড়া করা গুঁড়া বাদল কাঠাল ওরফে বাঁকা। তবে রাজনাথ মুখার্জীর পিস্তল নিয়ে পরের গুলিটাকে করেছিল তা এখনও জানতে পারেনি জগদ্ধাত্রী।

সেইদিন সেই স্থানে দেখা গেছিলো দিভিয়া সেনের গাড়ি। যদিও তবে গাড়ি থেকে নামেননি তিনি, তার সাথে সেখানে ছিল দেবুদা। আসলে সেই দিন দিভিয়া সেনের গাড়িতে দেবুদা এবং দিভিয়া সেন ছাড়াও ছিলেন তুষারতীর্থ তলাপাত্র। তিনিই রাজনাথ মুখার্জী পিস্তল দিয়ে গুলি করেন কৌশিকী মুখার্জীকে। যেই গুলিটা লেগেছিল তার পিঠে। যাতে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করলে ফেঁসে যান রাজনাথ মুখার্জী এবং এই পুরো পরিকল্পনার মাথায় ছিল দিভিয়া সেন। তবে তিনি নিজে কিছু করেননি যাতে কেউ জানতে না পারে এসব তারই পরিকল্পনা।

তবে দিভিয়া সেনের এই পরিকল্পনা বিষয়ে এখনও কিছুই জানে না জগদ্ধাত্রী। তবে তদন্ত করে এবং সমস্ত প্রমাণ হাতে পেয়েই এবার স্বয়ম্ভু এবং জগদ্ধাত্রী হাজির হয় মন্ত্রী তুষারতীর্থ তলাপাত্রর অফিসে। সেখান থেকেই তারা গ্রেফতার করে মন্ত্রী তুষারতীর্থ তলাপাত্র এবং দিভিয়া সেনকে। এই পর্বটি সম্প্রচারিত হতে চলেছে আগামী পর্বে। তবে এবার কি জগদ্ধাত্রী পারবে তার সমস্ত শত্রুর একসাথে বিনাশ করতে নাকি আবারও বেঁচে যাবে দিভিয়া সেন এবং তুষারতীর্থ তলাপাত্র? বলবে সময়।

Ruhi Roy

রুহি রায়, গণ মাধ্যম নিয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাশ। সাংবাদিকতার প্রতি টানে এই পেশায় আসা। বিনোদন ক্ষেত্রে লেখায় বিশেষ আগ্রহী। আমার লেখা আরও পড়তে এখানে ক্লিক করুন।