Bangla Serial

জগদ্ধাত্রীতে বিরাট চমক! অপরাধীর সব খেলা শেষ করল জ্যাস সান্যাল! কোথায় পালালো বৈদেহি মুখার্জী?

জি বাংলার (Zee Bangla) জনপ্রিয় ধারাবাহিক জগদ্ধাত্রীতে (Jagaddhatri) ইতিমধ্যেই ধরা পড়েছে উৎসব। সেই নিয়েই কপালে চিন্তার ভাঁজ দেখা দেখিয়ে মেহেন্দি, বৈদেহি সহ পুরো পরিবারের। কৌশিকী সঙ্গে কথা বলতে চলে এসেছে মেহেন্দি আর প্রীতি। মেহেন্দি কৌশিকীকে বলছে এইসব কিছু হয়েছে শুধু আপনার জন্য। কি ভেবেছেন এইসব করে আপনি পাড় পেয়ে যাবেন, কখনও না, আপনি আপনার কর্মের উচিত শাস্তি পাবেন। তখন প্রীতিও বলে ওঠে আমি জানি এখন বড়দি কি করবে। এখন ও আরও বেশি করে চেষ্টা করবে যাতে উৎসব শাস্তি পায়।

তখনই সেখানে চলে আসেন রাজনাথ মুখার্জী। তিনি কৌশিকীর সামনে হাত জোড় করে বলেন “কৌশিকী আমি তোমার কাকুমনী হয়ে বলছে তুমি আমার ছেলেকে ছাড়িয়ে আনো, আমার ছেলেকে এইভাবে জেলে থাকতে দিও না।” তখন কৌশিকী তাকে না করে বলে সে এইসব কিছু করতে পারবে না উৎসব অন্যায় করেছে তাই সে শাস্তি পাবে। তখন রাজনাথ বলেন “আমি হাত জোর করে বলছেন তাও তুমি এটা করতে পারবে না সত্যিই তুমি অনেক বদলে গেছো।”

তখন সেখানে চল আসে জগদ্ধাত্রী। সে বলে বড়দি বদলে যাননি, আপনারা বদলে গেছেন। কি চেয়েছিলেন বড়দি, নিজের পরিবারের সঙ্গে শান্তিতে থাকতে কিন্তু আপনারাই সেটা করতে দেননি এখন বড়দির দোষ দিলে হবে না। উৎসব দোষ করেছে এখন কেউ তাকে বাঁচাতে পারবে না তাকে শাস্তি পেতেই হবে। সেটা শুনেই রাজনাথ জগদ্ধাত্রীকে বলেন চুপ করতে। প্রীতিও তখন বলেন সে জানে এখন কি হবে, উৎসবকে জেলে ভরা হয়েছে এবার তার স্বামীকে ভরা হবে। মনে হয় কোথাও চলে যাই।

তখন জগদ্ধাত্রী বলে তাদের যাওয়ার কোনও জায়গা নেই কারণ তার স্বামী ঘর জামাই। এটা শুনেই আরও রেগে যায় প্রীতি। কৌশিকী বলে এসব কথা আর না বলতে আর সেখানে থেকে চলে যান। ওদিকে জগদ্ধাত্রীকে ফোন করে কেস থেকে সরে আসার জন্য ধমকি দেয় একজন। জগদ্ধাত্রী স্বয়ম্ভুকে বলে নম্বরটার লোকেশন দেখতে কিন্তু সেই লোকটি আবার ফোন করে জগদ্ধাত্রীকে বলে সে তাকে খুঁজে পাবে না। জগদ্ধাত্রীর লোকটির গলা চেনা লাগে।

আরো পড়ুন: গল্পে পরকীয়া ছাড়া আর কিছুই নেই! দর্শকদের আকর্ষণ করতে না পেরে বন্ধ হচ্ছে ‘কার কাছে কই মনের কথা!’

ওদিকে সমরেশ আসে কৌশিকীকে বলে সে সিনেমায় লেখার সুযোগ পেয়েছে যেটা শুনে খুশি হয় কৌশিকী। কিন্তু কৌশিকীকে চিন্তায় দেখে সমরেশ তাকে জিজ্ঞাসা করে কি হয়েছে তখন সবটাই খুলে বলে কৌশিকী। তখন দেখা যায় কৌশিকীকে আসে বলে বৈদেহিকে খুজে পাওয়া যাচ্ছে না। জেঠিমনিও জগদ্ধাত্রীকে বলে অনেকক্ষন ধরে বৈদেহিকে পাওয়া যাচ্ছে না তখন জগদ্ধাত্রী তাকে বলে চিন্তা না করতে সে খুঁজছে। ওদিকে জ্যাস সান্যাল পৌঁছে যায় রাহুল ঘোষকে ধরতে। কারণ জ্যাস বুঝে গেছে সবটাই করেছে রাহুল। তাহলে কি এবার সবটা স্বীকার করবে রাহুল? কোথাও গেলেন বৈদেহি?

Ruhi Roy

রুহি রায়, গণ মাধ্যম নিয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাশ। সাংবাদিকতার প্রতি টানে এই পেশায় আসা। বিনোদন ক্ষেত্রে লেখায় বিশেষ আগ্রহী।