Bangla Serial

রূপ গিনিকে বিয়ে করবে না, এবার গিনি-মিনিকে এড়িয়ে চলছে ময়ূরী! তবে কি এবার ময়ূরীর আসল মুখোশ খুলে গেল বলে?

বর্তমানে ধারাবাহিক যেদিকে এগোচ্ছে, অনেকেরই মনে হচ্ছে হয়তো গল্পে আসতে চলেছে নতুন কোনও অধ্যায়। ‘ইচ্ছে পুতুল’এ মেঘ ও নীলের জীবনে আসবে নতুন কোনও মোড়। সম্প্রতি ধারাবাহিকের প্রোমোতে আমরা দেখেছি মেঘের জীবন আসতে চলেছে নতুন কোনও মানুষ। উল্লেখ্য, ময়ূরীর চালাকিতে ফের মিথ্যা অপবাদে মেঘকে আবার শ্বশুরবাড়িতে অপমানিত হতে হয়। এবার গিনির বয়ফ্রেন্ড রূপের সঙ্গে মেঘের নাম জড়িয়ে মেঘকে বদনাম করে ময়ূরী। গিনিকে বাঁচাতে গিয়ে মেঘ আবারও শ্বশুরবাড়িতে সকলের কাছে খারাপ হয়ে গেল। এবার মেঘ একেবারেই নীলকে ডিভোর্স দিয়ে দিতে চায়, পাশাপাশি ময়ূরীর সঙ্গে বিয়েটাও মেঘ নীলের সঙ্গে করাতে চায়।

উল্লেখ্য, মেঘের বাপেরবাড়ির পাড়ার এক লম্ফোট ছেলের সঙ্গে নীলের বোন গিনির সম্পর্ক রয়েছে। মেঘ তার সম্পর্কে সব জানার ফলে সেই সম্পর্ক নিয়ে খুবই চিন্তিত। মেঘ চায়নি গিনি এই মিথ্যা সম্পর্কে থাকুক। তাই বারংবার মেঘ গিনিকে সাবধান করেছে। কিন্তু মেঘের কথা কেউই বিশ্বাস করেনি। উল্টে মেঘই দুশ্চরিত্র এমন অপবাদ দেওয়া হয়েছে। চলতি বছরের ৩০ জানুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে জি বাংলার ধারাবাহিক ‘ইচ্ছে পুতুল’ (Icche Putul)।

ধারাবাহিকে আসছে নতুন মোড়

শুরু হওয়ার সাথে সাথে বড় লিপ নেওয়ার কথাও উঠছিল বারংবার। ধারাবাহিকে দুই বোনের মধ্যে বড় বোন অসুস্থ এবং ছোট বোন নিজের জীবন স্যাক্রিফাইস করে দিদিকে বাঁচিয়ে রেখেছে। কিন্তু তারপরও বড় বোন ময়ূরী ছোট বোন মেঘকে পদে পদে বিপদে ফেলে। শ্বশুরবাড়ির প্রায় সকলেই আবার ময়ূরীর উপর বিশ্বাস রাখে। নীলের বোন গিনিও মেঘকে একেবারেই সহ্য করে না। আর তাই স্বাভাবিক ভাবেই মেঘের কথায় পাত্তা দেয় না গিনি। এমনকি মেঘের চরিত্রের দিকেও আঙ্গুল তুলেছে নীল সহ শ্বশুরবাড়ির অনেকেই। আর তার জেরেই মেঘ এবার শ্বশুরবাড়ি থেকে নিজের বাড়ি চলে এসেছে।

গানের কম্পিটিশনে মেঘ

আমরা জানি, কলেজের গানের প্রতিযোগিতায় নাম দিয়েছে মেঘ। আর সেই কম্পিটিশনে গান গাইতে গিয়ে সমস্যায় পড়লে সেখানে একজন এসে সাহায্য করে মেঘকে। সেই অজানা ব্যক্তির জন্য কম্পিটিশনে মেঘ জিতবে, তা অনেক দর্শকই মনে করচেন। মেঘের সঙ্গে অন্য ছেলেকে গান গাইতে দেখে নীলের কি মনে হবে তাই দেখার অপেক্ষায় দর্শক। এদিকে নীলের বাড়িতে রূপ আসবে বলে সমস্ত কাজ চলছে, হঠাৎ নীল বাড়ি থেকে বেরিয়ে যেতে গেলে নীলের মা তার সঙ্গে ডিভোর্স দেওয়া নিয়ে কথা বলে। পাশাপাশি ময়ূরীকে নিয়েও নতুন জীবন গড়ে তোলার কথা বলে। একদিকে ময়ূরী সর্বদা নীল ও মেঘের বিচ্ছেদ মজবুত করার পরিকল্পনা করে চলেছে। তবে মেঘ আবার নিজের স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে চাইছে।

রূপের আসল মুখোশ ফাঁস

একদিকে মেঘ নীলের কথা ভাবতে ভাবতে গানের কম্পিটিশনের জন্য রেডি হচ্ছে। অপরদিকে রূপ আসবে বলে গিনি ও মিনি ময়ূরীকে ফোন করে ডাকছে। কিন্তু ময়ূরী জানে, রূপ একটা খারাপ ছেলে। সে শুধুই ঘুরতে যাওয়ার নাম করে গিনিকে ব্যবহার করবে, পরে ছেড়ে দেবে। আর তখন ময়ূরী কিছু জানে না এমন ভান করবে। কিন্তু তার আগে যাতে কিছুভাবে ময়ূরীর এই প্ল্যান ফাঁস না হয়, তাই সে গিনি ও মিনিকে এখন থেকেই এড়িয়ে চলছে। আসলে ময়ূরী গিনি ও মিনির সঙ্গে শুধুই নাটক করে। আসলে সে এই দুজনকে মোটেও পছন্দ করে না। তবে কি রূপের আসল মুখোশ ফাঁস হলে ময়ূরীকে সন্দেহ করবে নীলের বাড়ির লোকেরা? নাকি এবারেও পার পেয়ে যাবে সে?

Ratna Adhikary