Bangla Serial

“রাস্তায় লোকজন জিজ্ঞাসা করে তুমি কি বাবা হতে চলেছ?”, অঙ্কিতার সঙ্গে হা’তে হা’ত রেখে কেন গেছিলেন মুম্বাই? কটা’ক্ষে’র জবাব দিলেন স্বয়ম্ভু!

SoumyadeepAnkita: জি বাংলার (Zee Bangla) জনপ্রিয় ধারাবাহিক জগদ্ধাত্রী (Jagaddhatri)। একসঙ্গে একাই রাজত্ব করেছিল টিআরপিতে (TRP)। পরপর বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে ধারাবাহিকটি ছিল টপে। যদিও বর্তমানে শীর্ষস্থান হারালেও একইভাবে জনপ্রিয় জগদ্ধাত্রী। এখানেও তারা নিজেদের বজায় রেখেছে টিআরপি তালিকার প্রথম পাঁচের মধ্যে। তবে ধারাবাহিকটিতে আসা একের পর এক চমক, টানটান উত্তেজনা দর্শকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছে ধারাবাহিকের দিকে।

ইতিমধ্যেই ধারাবাহিকে এসেছে একের পর এক ধামা’কা। প্রমিতা বসু জগদ্ধাত্রীকে মা’রা’র জন্য চাল চলছে একের পর এক পরিকল্পনা। গায়ে হলুদের সময় জগদ্ধাত্রীর দিকে ব’ন্দু’ক তা’ক করার সময় তাকে দেখে নেয় কাঁকন। কিন্তু কাঁকন জগদ্ধাত্রীকে সবটা বুঝিয়ে ওঠার আগেই ওখান থেকে পালিয়ে যায় প্রমিতা। এরপর গরিমার বিয়ের সময় তিনি আবার গু’লি করে হ’ত্যা করার চেষ্টা করেন জগদ্ধাত্রীকে। কিন্তু জগদ্ধাত্রীকে বাঁ’চাতে গিয়ে আহত হয় গরিমা নিজেই। তাকে নিয়ে তড়িঘড়ি হাসপাতালে ছোটে মুখার্জী পরিবার।

কিন্তু হাসপাতালেই গরিমাকে দেখতে এসে সংজ্ঞা হারায় জগদ্ধাত্রী। তার চেক-আপ করে যদিও তাকে ছেড়ে দেন ডাক্তার। কিন্তু আসলে কি হয়েছে জগদ্ধাত্রীর? এই নিয়েই দর্শকদের মনে উঠেছে প্রশ্নের ঝড়। সম্প্রতি একটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক মাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন জগদ্ধাত্রী স্বয়ম্ভু ওরফে অঙ্কিতা (Ankita Mallick) এবং সৌম্যদীপ (Soumyadeep Mukherjee)

সেখানেই তারা উদঘাটন করেছেন মুম্বাই সফরে তাদের মুম্বাই সফরের রহস্যের। অভিনেত্রী জানিয়েছেন “জি ৫-এর শোগুলো নিয়ে একটি শুট করা হয়েছিল। সেখানেই জগদ্ধাত্রীর থেকে আমরা গিয়েছিলাম। এই প্রথমবার মুম্বাই সফর যদিও কিছুই দেখতে পারিনি। ফ্লাইট ধরব বলে। হাতে জুতো নিয়ে দৌড়াতে হয়েছে।”

উল্লেখ্য, অভিনেত্রী এও জানিয়েছেন যদি ভবিষ্যতে সুযোগ হয় তবে বলিউডে কাজ করতে চান তিনি। তবে ধারাবাহিকের নতুন ট্র্যাক, সত্যি কি মা হচ্ছে জগদ্ধাত্রী? অভিনেতা জানিয়েছেন “আমি রাস্তাঘাটে যেখানেই যাচ্ছি লোকে আমায় বলছে তুমি কি বাবা হচ্ছে।” অভিনেত্রী অঙ্কিতা সেই কথায় হাসতে হাসতে বলেছেন “আমি ভেবেছিলাম হয়তো আমায় কেউ কিছু খাইয়ে দিয়েছে তারপর আমায় বলছে তাড়াতাড়ি চল তাড়াতাড়ি চল বা’চ্চা কাস্টিং করতে যেতে হবে। আমি শুনে পুরো অবাক।”

আরো পড়ুন: শৌর্য্যর কাছে মি’থ্যে বলে চর’ম ফ্যাঁ’সা’দে নীলু! ডোরার মুখে সব সত্যি জেনে রে’গে কাঁ’ই শৌর্য্য! এবার কি তবে ঘা’ড় ধা’ক্কা খাবে নীলু?

তবে ধারাবাহিক নিয়ে বর্তমানে চলছে নানাভাবে ট্রো’লিং। অভিনেতা অভিনেত্রীদের শুনতে হচ্ছে নানা ম’ন্তব্য সেই বিষয়েই এবার মুখ খুললেন তারা। অভিনেত্রীর অঙ্কিতার কথায় “আপনারা অন্য কাউকে ভালোবাসতেই পাবেন তবে তার মানে এই নয় যে আপনারা অন্যজনকে হে’য় করবেন। এরকম খা’রা’প খা’রা’প ভাষা। কেন কোন‌ও কারণ ছাড়াই লোকজন লিখছেন আমি সেটাই বুঝিনা। কোন মানেই হয়না। ইচ্ছে করে লাইমলাইটে আসার জন্য এগুলো করেন ওনারা।” অভিনেত্রীর কথার সঙ্গে সহমত জানিয়ে স্বয়ম্ভু বলেছেন তিনি এই ধরনের লোকেদের ব্ল’ক করে দেন সঙ্গে সঙ্গে। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়া থেকেও বিরত থাকেন। আপনাদের এই বিষয়ে কি মত?

Ruhi Roy

রুহি রায়, গণ মাধ্যম নিয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাশ। সাংবাদিকতার প্রতি টানে এই পেশায় আসা। বিনোদন ক্ষেত্রে লেখায় বিশেষ আগ্রহী। আমার লেখা আরও পড়তে এখানে ক্লিক করুন।