Connect with us

    Bangla Serial

    পর্ণার কামাল! দত্ত বাড়িকে বিপদের হাত থেকে বাঁচাতে নতুন ধামাকা নায়িকার! মিস করবেন না

    Published

    on

    Parna

    জি বাংলার (Zee Bangla) জনপ্রিয় ধারাবাহিক নিম ফুলের মধুতে (Neem Phooler Madhu) পর্ণা দত্ত বাড়িতে খুলেছে হোম স্টে। যেখানে তরঙ্গ দত্ত নামে একজন তার স্ত্রীর সঙ্গে ৭ দিনের জন্য বুকিং করেছে। সেই নিয়েই চিন্তিত পর্ণা। অয়ন আর মৌমিতা চেষ্টা করে যাচ্ছে কিভাবে পর্ণাকে অপদস্থ করা যায়। সকাল বেলায় পর্ণার সঙ্গে ধাক্কা লেগে বাসন পরে যায় কৃষ্ণার । পর্ণাকে দেখেই রেগে যায় কৃষ্ণা। পর্ণা কৃষ্ণাকে সাহায্য করতে গেলে রেগে চলে যান তিনি। সেই দেখে কৃষ্ণার কাছে যায় মৌমিতা।

    কৃষ্ণাকে একটা পান দেয় কিন্তু যেই কৃষ্ণা শোনে সেটা ঈশা পাঠিয়েছে তখন তিনি সেটা ফেলে দেন। মৌমিতা কৃষ্ণাকে পর্ণার বিরুদ্ধে বোঝালে কৃষ্ণা জানিয়ে দেয় সে এই ঝামেলায় আর নেই। মৌমিতা বুঝে যায় কার কাজ হবে না এখানে। রাত্রে খাওয়ার সময় সৃজন পর্ণার দেওয়া টুপি পরে খেতে এসে সেটা দেখে সবাই বুঝে যায় সেটা পর্ণা দিয়েছে এবং মজা করতে থাকে। যেটা দেখে রেগে ঘরে চলে যায় অয়ন। অয়নকে কিছু না খেয়ে চলে আসতে দেখে মৌমিতা তাকে জিজ্ঞাসা করে কি হয়েছে।

    অয়ন মৌমিতাকে বলে ঈশাকে ফোন করে বলতে যে সৃজনকে পর্ণা টুপি দিয়েছে। অয়নের কথা মত সেই কথা ঈশাকে বলতেই ঈশা বলে সেই একই রঙের উল দিয়ে একটা টুপি বানিয়ে দিতে। সেটা ঈশা অনুভবকে দেবে যাতে সেটা দেখে সৃজন এবং পর্ণার মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়। ঈশার কথা মতোই কাজ করে মৌমিতা আর অয়ন। ওদিকে পর্ণা ভাবতে থাকে সেই তরঙ্গ দত্তকে নিয়ে। ওদিকে দেখা যায় তরঙ্গ দত্তের পার্টনার তাকে বাই বলছে।

    সকালে অয়ন টুপি বানিয়ে দিয়ে দেয় ঈশাকে। ওদিকে দত্ত বাড়িতে আসে হাজির হন তরঙ্গ দত্ত এবং তার স্ত্রী। তার মুখ ঢাকা থাকায় তরঙ্গ দত্ত বলেন তার স্ত্রী অসুস্থ। রুচিরাকে পর্ণা ইশারা করে দেয় কোনও অছিলায় তরঙ্গ দত্তের স্ত্রীর মুখটা দেখে নিতে। রুচিরা তরঙ্গ দত্তের স্ত্রীকে নিয়ে ঘরে চলে যায়। কিন্তু অনেক চেষ্টা করার শর্তেও রুচি সেই মেয়েটির মুখ দেখতে পায়না। ওদিকে তরঙ্গ দত্তকে আইডি দেখাতে বলে পর্ণা। তরঙ্গ দত্ত নিজের আইডি দেখান কিন্তু তার স্ত্রীর আইডির কথা জিজ্ঞাসা করতেই ঘাবড়ে যায় তরঙ্গ দত্ত।

    আরো পড়ুন: “অসফলতাকে উপভোগ করলে তবেই সফল হবেন!” হেরে গিয়েও লড়াই করে টিকে যাওয়ার গল্প শোনালেন ‘শৌর্য্য’ ওরফে সপ্তর্ষি রায়

    ব্যাগের মধ্যে খুঁজতে থাকেন সেই সময় পর্ণার হাত থেকে বল পরে যায় সৃজনের পায়ে এবং ব্যাথা পায় সে। ওদিকে আইডি পরে দেব বলে ওপরে চলে যায় তরঙ্গ দত্ত। রুচিরাও এসে পর্ণাকে জানায় সে মেয়েটির মুখ দেখতে পারেনি। সব কিছু দেখ খটকা বাড়তে থাকে পর্ণার মনে। তাহলে কি ধরা পড়বে তরঙ্গ দত্ত? ঈশার ফন্দির কথা জানতে পারবে পর্ণা? কি হতে চলেছে তা জানা যাবে আসন্ন পর্বে।