Bangla Serial

একবাড়ি লোকের সামনে অপদস্থ নীলু, ইচ্ছে করে নীলু রান্না খারাপ করেছিল হাতেনাতে প্রমাণ দিল রাই

জি বাংলার (Zee Bangla) জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘মিঠিঝোরা’ (Mithijhora)টিআরপি (trp) তালিকায় ভাল ফল না করলেও, তিন বোনের গল্প নিয়ে উৎসাহের অন্ত নেই দর্শকদের। আগ্রহ ধরে রাখতে তাই গল্পে একাধিক টুইস্ট আনছেন পরিচালক। এই মুহূর্তে, পেট চালাতে একপ্রকার বাধ্য হয়ে মেজ বোন নীলুর বাড়িতে নার্সিং-এর কাজ করতে এসেছে রাই।

ধারাবাহিকের গল্পে আমরা দেখেছি, বড় বোন রাই ও তার প্রেমিক শৌর্য্যর সঙ্গে বিয়ের দিন হার্ট অ্যাটাকে মারা যায়। সংসারের হাল ধরতে বাধ্য হয়ে বিয়ে ভেঙে দেয় রাই। নিজের ভালোবাসার মানুষের সঙ্গে মেজ বোন নীলুর চার হাত এক করে দেয়। নিজে বোন আর মায়ের দায়িত্ব দেয়। তীব্ৰ আপত্তি সত্বেও দিদির প্রেমিককে বিয়ে করে নীলু।

তবে বিয়ের পর আচমকা তার দিদির শ্বশুরবাড়িতে উঠে আসা না-পসন্দ নীলুর। হাজার হোক শৌর্য তার বিয়ে করা বর। নীলু জানে এক সময় শৌর্য রাইকে ভালোবাসত। রাইয়ের শৌর্যের চোখের সামনে অবাধ বিচরণ কি শৌর্য আর নীলুর সম্পর্কের জন্য আধেও সঠিক। তবে দোটানার মধ্যে শৌর্য একসময় নীলুকে আশ্বস্ত করে। বলে রাই এখন অতীত। পুরোনো কাসুন্দি ঘেঁটে লাভটা কি? এখন শৌর্য্যর মন প্রাণ জুড়ে শুধু নীলু।

দরজার বাইরে দাঁড়িয়ে নীতু আর শৌর্যের কথা শুনতে পায় রাই। তারপর আচমকা দরজা খুলে ঘরে ঢুকে পড়ে। রাইয়ের এহেন ব্যবহারে অসন্তুষ্ট হয় দুজনেই। কিন্তু রাই বলে জরুরি তলব। বাবার ইনহেলার শেষ। তাই নিতে এসেছে সে। রাইয়ের কথা শুনে ক্ষেপে ওঠে শৌর্য। কেয়ার গিভার হিসেবে নিজের দায়িত্ব পালন করতে পারছে না রাই, বলে রাইকে অপমান করে দুজন।

আরো পড়ুন: দাবাং পর্ণা! টাকা উদ্ধার করে সকলের হাতে অয়নকে জুতোর বাড়ি খাওয়ালো পর্ণা! নিম ফুলের মধুতে বিরাট চমক

পরদিন সকালে নীলুর শাশুড়ি মাকে গিয়ে রাই জানায়, এবার থেকে রান্নার কাজ সে করবে না। সে দাদামশাইয়ের খেয়াল রাখবে। এমনকি রান্নায় নুন-ঝাল যে নীলু দিয়েছে এবং এই বাড়ি থেকে তাকে তাড়াতে যে চেষ্টা করছে বলেও দাবি করে রাই। শ্বশুরবাড়ির সকলের সামনে এমন অপমান কি মেনে নেবে নীলু? জানতে হলে চোখ রাখুন জি বাংলার পর্দায়।

Ruhi Roy

রুহি রায়, গণ মাধ্যম নিয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাশ। সাংবাদিকতার প্রতি টানে এই পেশায় আসা। বিনোদন ক্ষেত্রে লেখায় বিশেষ আগ্রহী।