Bangla Serial

‘শাশুড়িকে তালাবন্ধ করে এভাবে যাওয়া ঠিক নয় বৌমা!’ প্রথম শাশুড়ির হয়ে রাগ দেখাল কাকী শাশুড়ি! শিমুল কি সত্যিই অপরাধ করেছে?

সমাজে মেয়েদের অবস্থাকে তুলে ধরছে বর্তমানে বেশ কয়েকটি ধারাবাহিক। এরমধ্যেই সম্প্রতি শুরু হওয়া একটি ধারাবাহিক জি বাংলার ‘কার কাছে কই মনের কথা’ বাড়ির মেয়ে-বউদের এমনই কিছু অস্বস্তিকর পরিস্থিতি বারংবার সামনে আনছে। হয়তো পর্বগুলো দেখে অনেক দর্শকেরই গা জ্বলছে, কিন্তু বাস্তবের কিছু ধ্রুব সত্যকেই তুলে ধরছে এই মেগা। ২০০৯ সালের স্টার জলসার ‘বউ কথা কও’ ধারাবাহিকের মধ্যে দিয়ে ১৩ থেকে ৮৩ সকলের নয়নের মনি হয়ে উঠেছিলেন মানালি দে। একাধিক ধারাবাহিকে তিনি কাজ করলেও সকলের কাছে আজও মৌরি বলেই বিশেষ পরিচিত মানালি।

এবার নতুন ধারাবাহিকে নতুন রূপে ফিরছেন মানালি। ধারাাহিকের কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছেন এই টেলি তারকা। নতুন বউয়ের সাজে যেন আরও একবার সেই ‘বউ কথা কও’এর নস্টালজিয়ায় ফিরে গেলেন দর্শক। উক্ত ধারাবাহিকে বিশেষ করে মানালিকে দেখবে বলে অনেকেই অপেক্ষায় ছিল। আর তাই মানালির জন্য যে চ্যানেলের টিআরপি চূড়ায় উঠবে তা অনেকেরই মনে হয়েছিল। যদিও বেশকিছু দর্শকদের মতে, ধারাবাহিকে বেশিরভাগই নেগেটিভ দেখানো হয়েছে। সমাজের রূপটিকে তুলে ধরতে গিয়ে এতটাই নেগেটিভ জায়গায় চলে গিয়েছে যে কিছুজন বিরক্তিপ্রকাশ করছে। উক্ত মেগাতে বেশকিছু বাস্তবের ঘটনাকেই তুলে ধরা হচ্ছে।

একটি সাদামাটা প্রতিবাদী মেয়ে শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে নিজের সম্মানের জন্য যে লড়াই করতে চলেছে, তা নিয়েই হবে এই ধারাবাহিক। প্রোমো দেখেই বোঝা যায়, শিমুলকে তার শ্বশুরবাড়িতে বহু সমস্যার মুখে পড়তে হবে। নতুন বউ হিসাবে বাড়ি আসতেই যেমন গায়ের রং নিয়ে খোঁটা শোনে, সাথে শাশুড়ির সর্বদা খিটখিট, বাপেরবাড়ির প্রসঙ্গ তুলে খারাপ কথা শোনানো। এমনকি ছেলের বউয়ের রয়েছে সুন্দর গানের গলা। তাই তার মা সাধ করে শিমূলের হারমোনিয়ামটা পাঠিয়ে দিয়েছে। কিন্তু, সেটার স্থান হল গুদাম ঘরে।

প্রতিবাদী শিমুল

যদিও শিমুল সব কথা মুখ বুঝে সহ্য করেনি। তবে শ্বশুরবাড়ির সকলের মাঝে শিমুল কি পারবে নিজের সম্মানকে রাখা করতে? প্রথম থেকে শিমুলের উপর অধিকার ফোলানোর চেষ্টা করে শিমুলের স্বামী। এদিকে কেউ শিমুলকে অপমান করলে তার বিরোধিতা না করে বরঞ্চ সায় দেয় সেটায়। শাশুড়ি প্রতিমুহূর্তে শিমুলের খুঁত দেখতে ব্যস্ত। এমনকি প্রতিবেশীদের কথায় শিমুল গান গাইলে ছোট দেওর পলাশও শিমুলকে অপমান করে সকলের সামনে। বাড়ির বউয়ের গান গাওয়া অন্যায়, এমনটাই মনে করে সকলে। এরমাঝেই শিমুলের একটা ছোট্ট ভুলের জন্য শিমুলকে বাড়ি থেকে বের করে দেবার কথা বলে শাশুড়ি। প্রতিবেশী বন্ধুর বাড়ি যাওয়ায় শ্বশুরবাড়ির লোক শিমুলকে বাড়ি থেকে বের করে দিল।

শ্বশুরবাড়ি থেকে বেরিয়ে কোথায় যাবে শিমুল?

প্রতিবেশী বন্ধু বিপাশা শিমুলকে নেমন্তন্ন করলে শাশুড়ি না যেতে দেওয়ায় শিমুলের ননদ পুতুল জোর করে শিমুলকে নিয়ে যায় যখন শাশুড়ি দুপুরে ঘুমায়। তারা ঘরে বাইরে থেকে চাবি দিয়ে বিপাশার বাড়ি যায়। কিন্তু তারা ফিরে এসে দেখে শাশুড়ি জেগে গিয়েছে সাথে শিমুলের বর ও দেওর ফিরে গিয়েছে। না বলে বন্ধুর বাড়ি যাওয়ায় এবার বাপেরবাড়িতে ফোন করে শিমুলের নাম নিন্দা করে শিমুলের মায়ের কাছে! তাদের শেখানো শিক্ষার উপর আঙ্গুল তোলে শাশুড়ি। পাশাপাশি শিমুলের কাকীও এবার শিমুলকে শাসন করল। বাড়ির নতুন বউ হয়ে তালা বন্ধ করে না বলে যাওয়া অনুচিত হয়ছে বলে জানায় সে। শাশুড়ি শিমুলকে বাপেরবাড়ি পাঠিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করে। এদিকে শিমুলের দাদারা প্রথম থেকেই শিমুলের দায়িত্ব নিতে নারাজ। এবার কি করবে শিমুল?

Piya Chanda