জয়েন গ্রুপ

বাংলা সিরিয়াল

এই মুহূর্তে

Bangla Serial

বেশি পৌরুষত্ব দেখাতে গিয়ে কেস! জেঠুর দয়ায় বেকার সৃজন এখন মশলার দোকান চালাচ্ছে! উচিত শিক্ষা বলছেন নেটিজেনরা

গল্পের নতুন মোড় নিয়ে হাজির হচ্ছে জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক নিম ফুলের মধু (Neem Phuler Modhu)। এই ধারাবাহিকের গত কিছু পর্বে শুধুমাত্র ঈশার চালাকি দেখা গিয়েছে। প্রথমে চালাকি করে সৃজনকে বিয়ে করতে চাওয়া তারপর বিয়ে ভেঙে যাওয়ায়, পর্ণা ও সৃজনের শাড়ির কথার শাড়ি লুকিয়ে রাখা ইত্যাদি।

শাড়ির কথার এক্সিভিশনে এসে পৌঁছয় পর্ণা , রুচিরা ও ঈশার কলেজ জীবনের বন্ধু অনুভব। অনুভব বর্তমানে একজন নামকরা ফটোগ্রাফার। সে পর্ণাকে অনুরোধ করে তার জন্য একটা ফটোশ্যুট করার। তাতে পর্ণা রাজিও হয়ে যায়। ফটোশ্যুটের পর উন্নত প্রযুক্তির ব্যবহার করে পর্ণার সমস্ত ছবি বিকৃত করে সেগুলিকে ছড়িয়ে দেয় ঈশা।

পরবর্তী পর্বে দেখা যায়, শাড়ির কথার কারখানায় ইচ্ছা করে আগুন লাগিয়ে দেয় সে। এতে পুড়ে যায় কারখানার সমস্ত শাড়ি। এই কোম্পানির সমস্ত কিছু করা হয়েছিল অন্যের থেকে লোন নিয়ে। তাই কারখানা পুড়ে যাওয়ায়, সমস্ত লোকজন তাদের বাড়ি ভাঙার জন্য চলে আসে। এমন অবস্থায় সেই লোকগুলোর হাত থেকে দত্ত বাড়িয়ে বাঁচায় পর্ণা।

আগামী পর্বে দেখা যাবে, সৃজনকে তার বড় জ্যেঠু তাদের মশলার দোকানের ভার সামলাতে দেয়। এমন সময় পর্ণা ছদ্মবেশে এসে একটা জিরে গুঁড়োর প্যাকেট চায় তার থেকে। কিন্তু সৃজন খুঁজেই পায়না জিরে গুঁড়োর প্যাকেট। তখন পর্ণা বলে যে, এরকম করে খুঁজলে এই দোকানটাও আর চলবে না। তখন সৃজন বুঝতে পারে যে, এটা পর্ণাই। সে মজা করছে সৃজনের সঙ্গে।

আরও পড়ুনঃ কার কাছে কই মনের কথায় বিরাট ধামাকা! পরাগ-শতদ্রু নয়! শিমুলের জীবনে আসছে নতুন নায়ক! নাম ফাঁস অভিনেতার

অন্যদিকে দেখা যাবে, মন্ত্রীর ছেলে রনির সঙ্গে জেলে দেখা করতে যাবে ঈশা এবং সেখানে গিয়ে সে রনিকে জানবে যে এইবার দত্ত বাড়ির মশলার দোকানের পালা। মশলার দোকান নষ্ট করে দেবে সে। তার এই কথা শুনে বেশ খুশি হয় রনি। এবং জেলেই তারা প্ল্যান কষতে থাকে দোকান নষ্ট করার।

Pou Chakraborty