Bangla Serial

একঘেয়ে হাসপাতালের পর্ব দেখিয়েই শেষ হল ইচ্ছে পুতুল! দেখানো হল না রূপের শাস্তি! অন্তিম পর্ব কি মন ভরালো দর্শকদের?

জি বাংলার (Zee Bangla) জনপ্রিয় ধারাবাহিক ইচ্ছে পুতুল (Icche Putul) শেষ হয়ে চলেছে আজই। অনেকদিন ধরেই জল্পনা শোনা যাচ্ছিল শেষ হতে চলেছে ধারাবাহিক ইচ্ছে পুতুল। যদিও সেই নিয়েও প্রথমে মুখ খোলেননি ধারাবাহিক বা প্রযোজনা সংস্থার কেউই তবে যোগমায়ার ট্রেলার মুক্তি পাওয়ার পরই জানা যায় ধারাবাহিক শেষ করার নোটিশ নিয়ে দিয়েছে চ্যানেল। প্রথম থেকেই জানানো হয়েছিল মেঘ এবং নীলের বিয়ে দেখিয়েই শেষ করা হবে ধারাবাহিকটি। হলো তাই, নিলে এবং মেঘের বিয়ের দিন ময়ূরীকে বন্দুক দিয়ে মেঘকে মেরে ফেলার পরিকল্পনা দেয় রূপ, ময়ূরীকে বন্দুক দিয়ে সাহায্যও করেছিল সে।

রূপের পরিকল্পনা ছিল মেঘকে ময়ূরীর হাত দিয়ে হত্যা করে সম্পূর্ণ দোষটা সে চাপিয়ে দেবে ময়ূরী ঘাড়ে তারপর সে প্রতিশোধ নেবে গিনি ও জিষ্ণুর ওপর। তার পরিকল্পনা অনুযায়ীই ঘটে সব। মেঘকে মারার চেষ্টা করে কারণে গ্রেফতার হয় ময়ূরী। তবে জেলে মারামারি করে ময়ূরী ভর্তি হয় হাসপাতালে। সেখানে তার সঙ্গে দেখা করতে আসে মেঘ তাকে রক্ত দিয়ে ফিরে যায় বৌভাতের অনুষ্ঠানে কিন্তু সেখানে গিয়েই সে জ্ঞান হারায়। একটু সুস্থ হলে সে জানতে পারে ময়ূরীর অবস্থা ভালো নয়, তাই দিদিকে বাঁচাতে দিদির হাসপাতালে গিয়ে রক্ত দিয়ে ময়ূরীকে বাঁচায় মেঘ।

তারপর আবার মেঘ নিজেই অসুস্থ হয়ে পড়ে। সবটা শুনে নিজের ভুল বুঝতে পারে ময়ূরী এবং মেঘের হাসপাতালে আসে মেঘের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেয়। দুইবছর পর দেখানো হয় মেঘের একটি মেয়ে হয়েছে এবং তাকে নিয়েই মেতে উঠেছে ময়ূরী। মেঘের মেয়েকে সমস্ত ভালো স্নেহে নিজের মেয়ের মতো করেই লালন পালন করছে সে।এইভাবেই শেষ হয়ে ধারাবাহিকটি তবে অনেকের ধারাবাহিকের এই পরিণতি পছন্দ হয়নি। তারা বলেছেন ধারাবাহিকের শেষ কয়েকটি পর্দা পুরোটাই কেটেছে হাসপাতালে।

এছাড়াও ধারাবাহিকের আরও একটু গুরুত্বপূর্ণ ভিলেন চরিত্র রূপের শাস্তি দেখানো হয়নি ধারাবাহিকে। তারপর রূপের কি হল, বা গিনি আর জিষ্ণুকে ভালোভাবে থাকতে দিল কিন্তু সমস্ত কিছুই ধারাবাহিকে রয়ে গেছে অজানা। প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে অনেক কিন্তু দুঃখের বিষয় তার উত্তর পাওয়ার আর অবকাশ রইল না ধারাবাহিকে। প্রায় ঝড়ের বেগেই শেষ হল ধারাবাহিকটি। তবে কেন এরকমভাবে শেষ হল ধারাবাহিকটি প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।

ইতিমধ্যেই স্টার জলসার ধারাবাহিক সন্ধ্যাতারা শেষ হয়েছে এবং সেই ধারাবাহিকেও ঈশ্বর, পিসিমা আর শৈলর গ্রেফতারি আর সন্ধ্যার বাড়ি ফিরে আসা দেখিয়েই শেষ হয়েছে ধারাবাহিক সন্ধ্যাতারা। কিন্তু তারার পরবর্তীকে কি হল, সে ফিরে এল কিনা, আকাশ এবং সন্ধ্যার গল্প অর্ধেক অবস্থাতেই শেষ করে দেই চ্যানেল যা পছন্দ হয়নি অনেকেরই। এবার ইচ্ছে পুতুলেও ঘটল সেই একই কান্ড। তবে এই এই সবটাই হচ্ছে এই কম সময়ের মধ্যে ধারাবাহিকগুলো দ্রুত শেষ করে দেওয়ার ফলে?

আরো পড়ুন: উত্তেজনায় ভরপুর অনুরাগের ছোঁয়া! নতুন বিপদের মুখোমুখি সূর্য, বিয়ের পিঁড়ি ফেলে প্রাক্তনকে বাঁচাতে ছুটল দীপা

তাই কি ধারাবাহিকের লেখক কাহিনীটিকে ঠিক করে গুছিয়ে ফেলার আগেই শেষ হয়ে যাচ্ছে ধারাবাহিকটি, তাই এরকম ফলাফল দেখা যাচ্ছে ধারাবাহিকগুলোর সমাপ্তিতে? প্রশ্ন তুলেছেন নেটিজেনরা। তারা জানিয়েছেন আরও ভালো করে গুছিয়ে শেষ করা যেত ধারাবাহিক ইচ্ছে পুতুল। কিন্তু শুধু হাসপাতাল দিয়েই শেষ হল ধারাবাহিকটি যা ভালো লাগেনি অনেকেই। তাহলে আপনাদের কি মত, রূপের শাস্তি এবং গল্পটাকে আরও ভালো করে শেষ করা যেত? আপনারাও কি তাই মনে করেন?

Ruhi Roy

রুহি রায়, গণ মাধ্যম নিয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাশ। সাংবাদিকতার প্রতি টানে এই পেশায় আসা। বিনোদন ক্ষেত্রে লেখায় বিশেষ আগ্রহী। আমার লেখা আরও পড়তে এখানে ক্লিক করুন।