Bangla SerialEntertainment

পর্ণার স্মৃতি শক্তি হারানোর সুযোগ নিয়ে তার সামনে নিজেকে সৃজনের বউ হিসেবে পরিচয় দিল সুইটি

Neem Phooler Madhu Today Episode: জি বাংলার (Zee Bangla) জনপ্রিয় ধারাবাহিক নিম ফুলের মধু (Neem Phooler Madhu)। একবারে ভিন্ন স্বাদের ধারাবাহিকটি শুরু থেকেই মন জয় করেছে দর্শকদের। বরং যত দিন এগিয়েছে ততই বেড়েছে ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তা। প্রতি সপ্তাহে দত্ত বাড়ির নতুন নতুন সমস্যা, দত্ত বাড়িকে বাঁচানোর জন্য পর্ণার তাঁর কাটা বুদ্ধি, সবটাই দারুণ পছন্দ করেছেন বাংলার মা বোনেরা। ফলেই ধারাবাহিকটির টিআরপিও ছিল অনেক। যদিও সম্প্রতি বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে বেশ খানিকটা কমেছে ধারাবাহিকের টিআরপি।

সম্প্রতি ধারাবাহিকে একের পর এক এসেছে নতুন নতুন চমক। মা হয়েছে পর্ণা, পর্ণার জীবনে ফিরে এসেছে তার পুরোনো শত্রু ঈশা। পর্ণার জীবনে উড়ে এসে জুড়ে বসেছে সুইটি, সঙ্গে অয়ন এবং মৌমিতার কূট বুদ্ধি তো আছেই, সব মিলিয়ে চারিদিক দিয়ে পর্ণাকে ঘিরে রয়েছে শত্রু। কিন্তু এসবের মধ্যেই ঘটে যায় দুর্ঘটনা। ছাদ থেকে পড়ে যাওয়ার ফলে স্মৃতিশক্তি নষ্ট হয়ে যায় পর্ণার। যদিও তাকে অনেক বুঝিয়ে দত্ত বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে আসে পিকলু এবং সৃজন।

নিম ফুলের মধু আজকের পর্ব ১৯ মে (Neem Phooler Madhu Today Episode 19 May)

ইতিমধ্যেই ধারাবাহিকে দেখা গেছে ২০২৪ সালের ক্যালেন্ডার দেখে চমকে গেছে পর্ণা কিন্তু পিকলু সহ সকলেই পর্ণাকে বুঝিয়ে বলে পর্ণা ১৯৯৩ নয়, বরং ২০০৩ সালে জন্মেছে। কথাটা প্রথমে যদিও একেবারেই বিশ্বাস করেনি পর্ণা। তখন তাকে দেখানো হয় নকল জন্ম এবং কলেজের সার্টিভিকেট। যেটা দেখে কিছুটা শান্ত হয় পর্ণা। এরপর সকলেই তাকে নিয়ে আসে তার ঘরে। সেখানে জগনাথ দেবের মূর্তি দেখে এবার সবাইকে প্রশ্ন করতে শুরু করে পর্ণা। তখন পরিস্থিতি সামলানোর জন্য পিকলু পর্ণাকে বলে সে আগে থেকেই জগনাথ দেবের মূর্তি এই বাড়িতে নিয়ে এসেছে।

এরপর পর্ণাকে আমার করতে বলে বেরিয়ে যায় সকলে। পর্ণা পিকলুকে সৃজনের প্রশংসা করে বলে সৃজন খুব ভালো মানুষ। কিন্তু সৃজনের মা কেন এলেন না তিনি কি গত হয়েছেন? সেটা শুনে পিকলু বলে না তিনি ঠিক আছেন। ওদিকে পর্ণার সঙ্গে দেখা করার জন্য কৃষ্ণার হাতে পায়ে ধরেন অমিবাবু। কিন্তু কৃষ্ণা জানায় পর্ণাকে এই বাড়িতে আনার কোন দরকার ছিল না। তাহলে তিনি সৃজনের আবার বিয়ে দিতে পারতেন। এর থেকে ভালো হতো পর্ণা মা’রা যেত। এটা শুনেই প্রতিবাদ করে বর্ষা। সে জানায় তার কুকর্মের ফল আজ তার জন্য তার মেয়ে পাচ্ছে।

সৃজনের বউ সেজে পর্ণার সামনে এসে দাঁড়াল সুইটি

ওদিকে পর্ণাকে দেখে ঈশার সঙ্গে দেখা করার জন্য চলে যায় সুইটি। আর পর্ণা এবং পুঁটির জন্য আম মাখা নিয়ে আসে সৃজন। পর্ণা সৃজনকে জিজ্ঞাসা করে তার স্ত্রীর ব্যাপারে। তখনই মাথা ভর্তি সিঁদুর পড়ে সৃজনের স্ত্রীর পরিচয়ে ঘরে চলে আসে সুইটি। তাকে দেখে অবাক হয়ে যায় পর্ণা। পর্ণাকে কোনভাবে সৃজন সুইটিকে নিয়ে ঘর থেকে বেরিয়ে আসে সৃজন। সুইটি তখন সৃজনকে বলে সে যদি এবার সুইটিকে স্ত্রী বলে মেনে না নেয় তাহলে পর্ণাকে গিয়ে সব সত্যিটা বলে দেবে সে। আর পর্ণা সেটা সহ্য করতে না পেরে মা’রা যাবে। সেটা শুনেই অবাক হয়ে যায় সৃজন। এবার কি সুইটির শর্ত মেনে নেবে সৃজন, নাকি সুইটিকে জব্দ করার জন্য নতুন পরিকল্পনা করবে সে, আপনাদের কি মনে হয়?

Ruhi Roy

রুহি রায়, গণ মাধ্যম নিয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাশ। সাংবাদিকতার প্রতি টানে এই পেশায় আসা। বিনোদন ক্ষেত্রে লেখায় বিশেষ আগ্রহী। আমার লেখা আরও পড়তে এখানে ক্লিক করুন।