Bangla SerialEntertainment

মা তাঁর ছায়া! মায়ের অ’সুস্থতায় ভেঙে পড়েছিলেন শ্বেতা! মায়ের অসুস্থতা, সঙ্গে শুটিংয়ের চাপ! অকপট অভিনেত্রী

টেলিভিশন অর্থাৎ ধারাবাহিকের জগতে বর্তমানে প্রথম সারির অভিনেত্রীদের মধ্যে একজন তিনি। দীর্ঘ ১৪ বছরের অভিনয় জীবনে নিজের অভিনয়ের দক্ষতায় তিনি বারবার মন জয় করেছেন দর্শকদের। প্রতিবাদী নারী হোক মা বাড়ির সরল বউ সমস্ত চরিত্রেই তাঁর দুর্দান্ত অভিনয় বারবার অবাক করেছে দর্শকদের। নাচ, গান বা অভিনয় সবেতেই পারদর্শী টলিপারার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্বেতা ভট্টাচার্য।

সিঁদুর খেলা ধারাবাহিকের মাধ্যমে অভিনয় জগতে পা রেখেছেন শ্বেতা। এরপর তুমি রবে নীরবে, জড়োয়ার ঝুমকো, যমুনা ঢাকি, কনক কাঁকন, সোহাগ জল, জয় কানহাইয়া লাল কি সহ মোট ৮টি ধারাবাহিকে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী শ্বেতা ভট্টাচার্য। বর্তমানে শ্বেতা অভিনয় করছেন জি বাংলার ধারাবাহিক কোন গোপনে মন ভেসেছেতে। ধারাবাহিকে রণজয় বিষ্ণুর বিপরীতে শ্যামলীর চরিত্রে তাঁর অভিনয় খুব পছন্দ করছেন দর্শকরা। নতুন নতুন চমকের ফলে তরতরিয়ে বাড়ছে ধারাবাহিকের টিআরপিও। তবে শুধু ধারাবাহিকই নয়, বাস্তব জীবনেও একসঙ্গে নানা পরিস্থিতির সম্মুখীন হচ্ছেন অভিনেত্রী।

সম্প্রতি খুব অসুস্থ ছিলেন অভিনেত্রীর মা, এছাড়াও আসছে বছর নিম ফুলের মধুর সৃজন অর্থাৎ অভিনেতা রুবেলের সঙ্গে গাঁ’টছড়া বাঁ’ধবেন শ্বেতা। সম্প্রতি একটি জনপ্রিয় সংবাদ মাধ্যমে সাক্ষাৎকারে খোলাখুলি এই বিষয়ে কথা বলেছেন অভিনেত্রী তুলে ধরেছেন অভিনেত্রী। তিনি জানিয়েছেন এখন তাঁর মা অনেকটাই সুস্থ আছেন। তবে অভিনয়ের জগতে তাঁর আট বছরের এই যাত্রায় সবসময় তাঁর পাশে ছিলেন তাঁর মা। রোজ আসতেন সেটে। অভিনেত্রীর কথায় তাঁর মা তাঁর ছায়া। যদিও বর্তমানে শারীরিক সুস্থতার কারণে রোজ উপস্থিত থাকতে পারেননা তিনি। তবে রোজ বাড়িতে বসে রুবেল আর তাঁর ধারাবাহিকের প্রতিটি পর্বই তিনি দেখেন।

আরো পড়ুন: একি হল! টিআরপিতে পর্ণা আর জ্যাসকে টেক্কা দিয়ে আবার কেল্লাফতে করল ফুলকি! কোথায় রোশনাই?

অভিনেত্রী জানিয়েছেন “একই প্রফেশনে থাকার অনেক ভালো দিক আছে আবার অনেক খারাপ দিও আছে। যদি নিজেদের মধ্যে রেষারেষি নিয়ে আসি তাহলে সম্পর্ক ভেঙে যাবে। আমারদের অনেক রোম্যান্টিক দৃশ্য করতে হয় আলাদা প্রফেশন হলে হয়ত মানতে পারতাম না কিন্তু একই প্রফেশন হওয়ার কারণে আমরা সবটাই বুঝি। আমি এমনিতে খুব পজেজিভ যে মানুষটা আমাকে টাচ করতে সে অন্যকে টাচ করলে তাঁর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হলে আমার তো খারাপ লাগবেই তখন স্মি ভেবে নিই এটার জন্যই আমরা টাকা পাই আমাদের সংসার চলে। আমরা কোন অসভ্যতা করছি না, অশ্লীলতা করছি না।”

অভিনেত্রীর কথায় “সেটে আরও প্রায় ৭০ জন লোক থাকে সেটে তাই আমরা ক্যামেরার সামনে যা করছে তাঁর মানে আমরা একে অপরের ঘনিষ্ঠ এমনটা নয়। কাজের মধ্যে আমাদের মধ্যে কোন ফিলিংস আসেনা তখন খালি কাজ। তবে আমি যতটা সম্ভব দূরত্ব জমায় রাখি।“ বিয়ে নিয়ে অভিনেত্রী জানিয়েছেন তাঁদের বিয়ের কেনাকাটা প্রায় শেষ। নতুন বছরের পঞ্জিকা দেখে তাঁরা শীঘ্রই তারিখ ফাইনাল করবেন। অভিনেত্রী আগামী জীবনের জন্য রইল শুভেচ্ছা।

Ruhi Roy

রুহি রায়, গণ মাধ্যম নিয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাশ। সাংবাদিকতার প্রতি টানে এই পেশায় আসা। বিনোদন ক্ষেত্রে লেখায় বিশেষ আগ্রহী। আমার লেখা আরও পড়তে এখানে ক্লিক করুন।