Food

এক থালা ভাত সাফ যদি থাকে কমলা কাতলা ঝোল! রইল রেসিপি

শীত রোদ গায়ে মেখে কমলা লেবুর রস খেতে কে না ভালবাসে। পিকনিক হোক বা স্পোর্টস ডে, কমলালেবু (Orange) থাকবেই টিফিনে। তবে জানেন কি, একটু হটকে স্বাদ পেতে এই টকমিষ্টি ফল দিয়ে আপনিও তৈরি করে নিতে পারেন অভিনব কাতলা (Katla) মাঝের ঝোল। নাম কমলা কাতলা (Kamala Katla)। রইল সহজ রেসিপি (Recipe)।

উপকরণ – ৬ টুকরো কাতলা মাছ, ১/৪ কাপ পেঁয়াজবাটা, ১/২ চা চামচ আদাবাটা, ১/২ চা চামচ রসুনবাটা, ২টি কমলালেবু, ২টি কাঁচালঙ্কা, ১ চা চামচ নুন, ১ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১/২ চা চামচ জিরা গুঁড়ো, ১/২ চা চামচ ধনে গুঁড়ো, ১ চা চামচ গরম মসলা গুঁড়ো, ২ টো শুকনো লঙ্কা, ১ কাপ টমেটো পেস্ট, ১/২ চা চামচ গোটা জিরে

প্রণালী – ১চা চামচ হলুদ গুঁড়ো ও নুন ম্যারিনেট করে মাছগুলিকে মিনিট দশেক রেখে দিন। এবার একটি প্যানে ৩ টেবিল চামচ তেল গরম করুন ও মাছের টুকরো গুলো হালকা করে ভেজে নিন। খেয়াল রাখবেন বেশি কড়া না ভাজা হয়ে যায়। এবার একটি বাটিতে তুলে রাখুন। সেই সঙ্গে বের করে রাখুন দুটো কমলা লেবুর রস।

এবার ওই একই প্যানে তেল গরম করে তাতে জিরে ও কাঁচালঙ্কা ফোড়ন দিন। ফোড়ন ফাটতে শুরু করলে পেঁয়াজ, রসুন, আদার পেস্ট যোগ করুন। বাটা মশলাগুলি হালকা সোনালী হয়ে ঘন হওয়া পর্যন্ত ভাজুন। এবার বাকি হলুদ গুঁড়ো, জিরা গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, কাশ্মীরি লাল লঙ্কার গুঁড়ো, নুন এবং টমেটো পেস্ট দিয়ে ভাল করে কষান। সামান্য চিনিও দিতে পারেন।

এবার মশলা থেকে তেল ছাড়লে এক কাপ গরম জল দিন। ফুটতে শুরু করলে এবার মাছের টুকরোগুলো দিয়ে দিন। মাছে ঝোল ঢুকে এলে আঁচ কমিয়ে কমলা লেবুর রস দিয়ে দিন। মিনিট তিন পরেই গরম মশলার গুঁড়ো মিশিয়ে গ্যাসের আঁচ বন্ধ করে রাখুন। ঢাকা দিয়ে রাখুন আরও মিনিট দশেক। তারপর গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন কমলা কাতলা।

Joyee Chowdhury

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ-এ স্নাতকোত্তর। বিনোদন ও সংস্কৃতি বিভাগই মূল ক্ষেত্র। আমার লেখা আরও পড়তে এখানে ক্লিক করুন।