জয়েন গ্রুপ

বাংলা সিরিয়াল

এই মুহূর্তে

Bangla Serial

Ichche Putul: কী সাংঘাতিক! হানিমুন মাটি মেঘ-নীলের! মেঘকে নিয়ে বাড়ি ফিরে এসে ময়ূরীকে সবার সামনে থাপ্পড় মারল নীল

সদ্য শুরু হয়েছে জি বাংলার ধারাবাহিক ‘ইচ্ছে পুতুল’। শুরু হওয়ার সাথে সাথে বড় লিপ নেওয়ার কথা উঠছে এই ধারাবাহিকের। দুই বোনের গল্প নিয়েই শুরু হয় এই ধারাবাহিক। ধারাবাহিকটির প্রোমো দেখে অনেকের মনে হয়েছিল, হয়তো এই ধারাবাহিক ‘ইচ্ছেনদী’ ধারাবাহিকের কপি। যদিও পুরোটা কপি না হলেও গল্পের মধ্যে রয়েছে অনেক মিল। ধারাবাহিক শুরু হওয়ার কিছুদিনের মধ্যেই গল্পে লেখক এনেছেন বিয়ের ট্র্যাক। ৩০ জানুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে এই ধারাবাহিক। ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্রে রয়েছেন মৈনাক বন্দ্যোপাধ্যায়, তিতিক্ষা দাস এবং শ্বেতা মিশ্র।

ধারাবাহিকে দুই বোনের মধ্যে বড় বোন অসুস্থ এবং ছোট বোন নিজের জীবন স্যাক্রিফাইস করে দিদিকে বাঁচিয়ে রেখেছে। কিন্তু তারপরও বড় বোন ময়ূরী ছোট বোন মেঘকে পছন্দ করে না। আর ছোট বোন দিদির সব কথা মুখ বুজে সহ্য করে। পাশাপাশি এও দেখা যায়, দিদির ছোট বোনের পছন্দের ছেলেকেও বিয়ে করতে চায় সে। যদিও ময়ূরী আর সৌরনীলের বিয়েতে বদল হয় কনে। ময়ূরীর বদলে সৌরনীল-এর সাথে বিয়ে হয়েছে মেঘের। আর সেখান থেকে মেঘের জীবনের মোড় ঘুরে যায়।

তবে সকলের সামনে ময়ূরী ভালো সাজলেও সে মনে মনে রেগে আছে মেঘের উপর। আর তার জন্য সে সবসময় মেঘকে বিপদে ফেলার নানারকম ফন্দি করে চলেছে। সম্প্রতি ময়ূরীর চক্রান্তে কলেজের পরীক্ষায় মেঘের ব্যাগ থেকে উদ্ধার হয় টুকলি করার নোট। তবে সে আবার পরীক্ষা দিয়ে প্রমান করে দেয় সে নির্দোষ। এই কাজ কার, তা মেঘ জানে তবুও সে চুপ থাকে। একটা সমস্যা মিটতে না মিটতেই আরেক নতুন সমস্যার মুখে পড়তে চলে মেঘ।

গানের প্রতিযোগিতাতে যাতে মেঘ হেরে যায়, তাই জোর করে ময়ূরী মেঘকে আইসক্রিম খাইয়ে দেয়। যদিও ওষুধ খেয়ে মেঘ গান করে। তবে স্বামী নীল বারংবার মেঘকে ভুল বোঝায় মন ভেঙে যায় মেঘের। আর মেঘের মন ভালো করতে বিদেশে হানিমুন করতে যাওয়ার প্ল্যান করে নীল। আর সেইমতো সমস্তকিছুর প্রস্তুতি নিতে থাকে তারা। তবে যাওয়ার সময় ময়ূরী ইচ্ছা করে মেঘের ব্যাগ থেকে বের করে দেয় মেঘের পাসপোর্ট।

মেঘের ব্যাগ গুছিয়ে দেওয়ার নাম করে সে এই চালাকি করে। বিমানে উঠতে যাওয়ার সময় পাসপোস্ট না পাওয়ায় তারা বাড়ি ফিরে আসে। নীলের সন্দেহ হয় ময়ূরী এই কান্ডটি ঘটিয়েছে। কারণ ময়ূরী মেঘের ব্যাগ গোছানোর ভার নিয়েছিল। আর তাই ভেবে নীল ময়ূরীকে প্রশ্ন করলে ময়ূরী ভয় পেয়ে যায়। আর তারপরই দেখে পাসপোর্টটি এক কোনে পড়ে রয়েছে, তবে কি নীল জেনে যাবে ময়ূরীর চক্রান্ত? আর সেই রাগেই সকলের সামনে চড় মারতে চলেছে নীল ময়ূরীকে? কি হতে চলে ‘ইচ্ছে পুতুলের পরবর্তী পর্বে?

Rimi Datta

রিমি দত্ত কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর। কপি রাইটার হিসেবে সাংবাদিকতা পেশায় চার বছরের অভিজ্ঞতা।