Connect with us

    Bangla Serial

    মেঘ ভালোবাসে নীলকে জানতে পেরে প্রতিজ্ঞার ঘেরাটোপ থেকে মেঘকে মুক্তি দিল তার বাবা! মিলন অনিবার্য

    Published

    on

    nil megh anindo

    এই মুহূর্তে জি বাংলার (Zee Bangla) পর্দায় চলা ধারাবাহিকগুলির মধ্যে দর্শকদের অত্যন্ত পছন্দের ধারাবাহিকের নাম অবশ্যই ‘ইচ্ছে পুতুল’ (Icche Putul)। এই মুহূর্তে ধারাবাহিকের গল্প টান টান উত্তেজনাময়। দিনকয়েক আগে পর্যন্ত এই ধারাবাহিকে জল্পনা উঠেছিল যে খুব তাড়াতাড়ি বন্ধ হয়ে যাবে এই ধারাবাহিক। তবে জল্পনা উড়িয়ে দিয়ে এখন‌ও কিন্তু এই ধারাবাহিকের গল্প উত্তেজনায় ট‌ইটুম্বুর।

    তবে বলাই বাহুল্য, যেভাবে এগোচ্ছে গল্প বা গল্পের গতিপ্রকৃতি তাতে মনে করা হচ্ছে এবার হয়ত বা সমাপ্তির মুখে এই ধারাবাহিক। উল্লেখ্য, এই ধারাবাহিকের গল্প অনুযায়ী, এই মুহূর্তে রূপ ও ময়ূরীর আসল চেহারা সকলের সামনে নিয়ে আসার জন্য ভীষণ তৎপর হয় গিনি। যাবতীয় প্রমাণ পুলিশের হাতে তুলে দেয় সে। এমনকী প্রেস মিট করে আসল অপরাধীদের সত্যিটা গোটা সমাজের সামনে তুলে ধরে সে। মদ্যপ অবস্থায় বলা রূপের স্বীকারোক্তির ভিডিও রেকর্ড করে রাখে সে। তারপর সেই ক্লিপ তুলে দেয় গিনির হাতে।

    বলাই বাহুল্য, রূপের পর্দাফাঁসের তুলকালাম পর্বে ভুয়ো সাংবাদিক সেজে ওই প্রেস মিটে গিয়ে হাজির হয় রূপ। এক মুখ দাড়ি গোঁফ পরে থাকলেও, গিনি আর নীলের চোখকে ফাঁকি দিতে পারে না সে। রূপকে ধরে নিয়ে যায় পুলিশ। আর সবার সামনে জোর গলায় রূপ জানিয়ে দেয় তাকে এই কাজ করতে বলেছে ময়ূরী।

    আরো পড়ুন: এবার গাঁটছড়া বাঁধতে চলেছে শিমুলের পুতুল দি! হাবলি ননদের জন্য পাত্র জুটিয়ে ফেলল শিমুল

    ময়ূরী যে এই অপরাধের সঙ্গে যুক্ত তা আগেই বুঝেছিল মেঘের বাবা। ধারাবাহিকের আজকের পর্বে দেখা যাবে, নীলের বাড়ির সবাই বেশ কয়েকবার নীলকে বলে মেঘের সঙ্গে কথা বলতে কিন্তু নীল আর কোনওভাবেই মেঘকে জোর করতে চায় না। নীল মেঘের সিদ্ধান্তকেই মেনে নেবে বলে জানায়।

    মেঘ আর নীলের সম্পর্কে ইতি টানার দিন চলে এসেছে। এখন আগের থেকে অনেক বেশি শান্ত হয়ে গেছে নীল। সে সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডিভোর্সের পর চলে যাবে শহর ছেড়ে অন্য শহরে। অন্যদিকে মেঘের বাড়িতে মেঘের মা তাকে বোঝাতে থাকে বুঝেশুনে সিদ্ধান্ত নিতে।

    অন্যদিকে মধুমিতা মেঘ কে বোঝাতে থাকে, সব সময় নিজের মনের কথা শোনা উচিত। আর তখন‌ই ঘরে ঢোকেন মেঘের বাবা। তিনি মেঘকে জিজ্ঞাসা করেন সে কেন নীলকে তার জীবনে আসতে দিচ্ছে না? মেঘ তখন বলে, তার বাবা তার ভালোর জন্য যেটা বলেছে সেটাই সে শুনবে। এরপর মেঘ ও তার মাকে অবাক করে দিয়ে মেঘের বাবা বলেন, “এই প্রতিজ্ঞার ঘেরাটোপ থেকে আমি তোকে মুক্ত করলাম।” তবে কী এবার মিলন হবে মেঘ-নীলের?