Food

মুগ বা মুসুর নয়, কেবল আলু দিয়েই বানিয়ে ফেলুন সুস্বাদু ডাল, ভাতের সঙ্গে চেটেপুটে সাফ হবে পাত

কথাতেই আছে ডাল ভাত খেয়ে থাকা। অর্থাৎ সাধারণ মানুষ থেকে অতি ধনী পরিবারেও ডাল একটি অত্যন্ত পরিচিত খাওয়ার। ডাল আমাদের সকলের জীবনেরই খাদ্য অভ্যাসের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। ডাল ছাড়া মুখে খাওয়ার ওঠে না অনেকেরই। তবে মুগ, মুসুর, অড়হর ডালের সঙ্গে ভাত প্রিয় খাদ্য অনেকেরই। আবার বিউলির ডালের সঙ্গে ভাত আর আলুপোস্ত যেন অমৃত।

আবার রুটির সঙ্গে ছোলার বা মুসুরের ডাল দিয়ে নৈশ ভোজের বা প্রাতরাশ করতে পছন্দ করেন অনেকে। তবে যদি কখনও দেখেন বাড়িতে চলে এসেছে অতিথি, অথচ কোন সময় বাড়িতে না থাকে কোন প্রকারের ডাল তখন? ভাত ছাড়া পুরো মেনুটাই থেকে যাবে অসম্পূর্ণ। তাহলে এখন উপায়? না না চিন্তা করবেন না, সেই জন্যেই আমরা নিয়ে এসেছে আপনাদের জন্য একেবারে নতুন একটি ডালের রান্না।

যেটি বানাতে লাগবে খালি আলু। হ্যাঁ খালি আলু দিয়েই এবার বানিয়ে ফেলুন ডাল। আর কেউ ধরতেও পারবে যে এটা আপনি আলু দিয়ে বানিয়েছেন ডাল নিয়ে নয়। আবার বানানোও অত্যন্ত সহজ। আবার ডাল দিয়েই চেটেপুটে ভাত খেয়ে নেবে সকলকে। জানেন কিভাবে বানাবেন এই রেসিপি। তবে তার আগে আপনাদের বলে রাখি আলুতে রয়েছে ভিটামিন সি এবং প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং রোগ জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াই করার ক্ষমতা যোগায় শরীরে। এছাড়াও হাড় ভালো রাখে, হজম শক্তি বাড়ায়।

তবে অনেকেই মনে করেন আলু থেকে ওজন বাড়ি তবে সেটা একেবারেই ঠিক নয়, আলুতে রয়েছে ফাইবার যা আমাদের পেট দীর্ঘক্ষণ ভরিয়ে রাখে ফলে বারবার খিদে পায়না। তবে আলু ভাজাভুজি খাওয়ার থেকে নিজেকে বিরত রাখুন। তাহলে চলুন এবার দেখে নিই কি কি উপকরণ লাগবে?

উপকরণ:

আলু ছাড়াও আলুর ডাল বানাতে লাগবে টমেটো কুচি, পেঁয়াজ কুচি, শুকনো লঙ্কা, চেরা কাঁচালঙ্কা, রসুন কুচি, হলুদ গুঁড়ো, জিরে গুঁড়া, গোটা জিরে, লঙ্কা গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, সর্ষের তেল, নুন ও চিনি।

প্রণালি:

প্রথমেই আলুগুলিকে ভালো করে সেদ্ধ করে নিন। তারপর হাত দিয়ে খোসা ছড়িয়ে ভালো করে মেখে নিন। একেবারে যেভাবে ময়না মাখেন সেইভাবেই। তবে আলু মাখার সময় তাতে লবণ বা জল দেবেন না। তারপর কড়াইয়ে তেল গরম করে ফোড়ন দিয়ে নিন শুকনো লঙ্কা আর গোটা জিরে। এরপর অল্প আঁচে ভেজে নিন টমেটো কুচি, পেঁয়াজ কুচি এবং রসুন কুচি। তবে যারা রসুন পছন্দ করেননা তারা রসুন বাদ দিতে পারেন। পেঁয়াজ রসুন লাল হয়ে এলে, সেগুলিকে কড়াই থেকে তুলে মিশিয়ে নিন আলুর সঙ্গে।

এরপর কড়াইয়ে তেল দিয়ে, দিয়ে দিন ওই আলু মাখা। তার মধ্যেই হলুদ গুঁড়ো, লবণ, চিনি এবং বাকি সমস্ত মশলা দিয়ে হালকা আঁচে ভালো করে কষিয়ে নিন। আলুর পেস্টটার সঙ্গে ভালো করে মশলাগুলো মিশে গেলে দিয়ে দিন জল। তবে ডাল কতটা পাতলা বা গড় রাখবেন সেই বুঝেই দেবেন জল। এরপর চেরা কাঁচালঙ্কা দিয়ে কিছুক্ষণ ফুটতে দিন ডালটা। মশলা মাখা আলুর সঙ্গে জলটা ভালো করে মিশে গেলেই ছাড়বে দারুন সুগন্ধ, এবার ওপর দিয়ে ধনে পাতা কুচি দিয়ে দিলেও রেডি আলুর ডাল। ভাত বা রুটির সঙ্গে পরিবেশন করুন রেসিপিটি।

Ruhi Roy

রুহি রায়, গণ মাধ্যম নিয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাশ। সাংবাদিকতার প্রতি টানে এই পেশায় আসা। বিনোদন ক্ষেত্রে লেখায় বিশেষ আগ্রহী।