জয়েন গ্রুপ

বাংলা সিরিয়াল

এই মুহূর্তে

Food

আহা! বৃষ্টির দিনে গরম ভাতের সঙ্গে কাঁচকলা চিংড়ি বাটা, জমে যাবে কিন্তু! কিভাবে বানাবেন? দেখে নিন রেসিপি

বর্ষাকালে বাঙালিদের খাওয়ারের প্রতি ভালোবাসা যেন আরও দ্বিগুণ বেড়ে যায়। পাতুরি থেকে ভর্তা বাদ যায়না কিছুই। যদিও এই সময় ইলিশ মাছের কদর বেড়ে যায় অনেকটাই। তবে চিংড়িকেও ব্রাত্য করে রাখা একেবারেই ঠিক নয়। বাইরে ঝমঝমিয়ে বৃষ্টি হলে সবসময় খিচুড়ি না খেয়ে মাঝেমধ্যে নিজের হাতে বানিয়ে নিতে পারেন নতুন কোন সহজ পদ। এই যেমন ধরুন কাঁচকলা চিংড়ি বাটা। গরম ভাতের সঙ্গে কিন্তু অসাধারণ খেতে লাগবে এই রেসিপিটি। কিভাবে বানাবেন? জেনে নিন এখুনি।

উপকরণ:

তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে বানাবেন এই কাঁচকলা চিংড়ি বাটা। তবে তার আগে জানিয়ে রাখা ভালো কি কি উপকরণ লাগবে এই রেসিপিটি বানাতে। প্রয়োজন পড়বে – ২৫০ গ্রাম ছোট চিংড়ি, ২টি কাঁচকলা, আধ কাপ পেঁয়াজ কুচি, ২ টেবিল চামচ রসুন কুচি, ৪টি কাঁচালঙ্কা, ৩টি শুকনো লঙ্কা, ১ টেবিল চামচ কালোজিরে, ২ টেবিল চামচ হলুদ গুঁড়ো, স্বাদ অনুযায়ী লবণ এবং পরিমাণ অনুযায়ী তেল

প্রণালী:

প্রথমেই ভালোভাবে ধুয়ে নিন চিংড়ি মাছগুলো। এরপর চিংড়ি মাছগুলোতে মাখিয়ে নিন নুন আর হলুদ। তারপর কড়াইয়ে নিয়ে তাতে দিয়ে দিন পরিমাণ অনুযায়ী তেল। তেল গরম হয়ে গেলে তাতে দিয়ে দিন চিংড়ি মাছগুলো। ভালোভাবে ভেজে তুলে নিন চিংড়ি মাছগুলো। তারপর একটি পাত্র নিয়ে তাতে তুলে রাখুন ভেজে রাখা চিংড়ি মাছগুলো।

এবার কাঁচকলাগুলো ধুয়ে সরু সরু করে কেটে নিন। এরপর কাঁচকলাগুলো ওই তেলেই লাল লাল করে ভেজে একটি পাত্রে তুলে রাখুন। তারপর ওই তেলেই ফোড়ন দিয়ে দিন কালোজিরে এবং শুকনো লঙ্কা। এরপর কড়াইয়ে একে একে দিয়ে দিন পেঁয়াজ কুচি, রসুন কুচি আর কাঁচালঙ্কা। তারপর কড়াইয়ে যোগ করুন সামান্য লবণ এবং হলুদ গুঁড়ো।

এবার সমস্ত উপকরণগুলো ভালোভাবে ভেজে নিন। ভালোভাবে ভাজা হয়ে গেলে একটি পাত্রে তুলে রাখুন উপকরণগুলো। এরপর একে একে আলাদা আলাদা ভাবে বেঁটে নিন সমস্ত উপকরণগুলো। এক্ষেত্রে প্রতিটি উপকরণ শিলে বাটতে পারলে ভাল। তবে মিক্সিতে বাটলেও কাজ চলে যাবে। আগে থেকে ভেজে রাখা ভাজা চিংড়ি, কাঁচকলা আর পেঁয়াজ-রসুন একসঙ্গে মিক্সিতে দিয়ে ঘুরিয়ে থকথকে মিশ্রণ বানিয়ে নিন। ব্যস তাহলেই তৈরি আপনাদের কাঁচকলা চিংড়ি বাটা। গরম ভাতের সঙ্গে এই পদটি অমৃত সমান।

Piya Chanda