Food

কাউকে ধোঁকা না দিয়ে, এই গরমে বানিয়ে ফেলুন পেঁপে দিয়ে ধোকার ডালনা

এসে গেছে গ্রীষ্মকাল। দিনে দিনে বাড়ছে পারদ। এই গরমে বেশি মশলা জাতীয় খাওয়ার শরীরের পক্ষে একেবারেই উপকারী নয়। তাছাড়াও এই গরমে তেল, ঝাল, মশলা জাতীয় খাওয়ার কারুরই মুখে রোচে না। সকলেই চায় যতটা সম্ভব হালকা পাতলা কম তেল, ঝাল মশলা জ্ঞাইয়ে খাওয়ার খেয়ে শরীরকে ঠান্ডা এবং সুস্থ করতে। কিন্তু রোজ রোজ হালকা পাতলা রান্না খেয়ে সকলেই মুখ মেরে যায়। তাই এই গরমে স্বাদ বদল করতে এবং শরীরকে ঠান্ডা রাখতে বানিয়ে ফেলুন পেঁপে দিয়ে ধোঁকার ডালনা। খেতে কিন্তু একেবারে ধোঁকার মতোই। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক রেসিপিটি।

উপকরণ:

পেঁপের ডালনা বানানোর জন্য প্রয়োজন পড়বে – আধ পাকা পেঁপে দেড় ভাগ অর্থাৎ প্রায় ২০০ গ্রাম, আলু, দেড় চা চামচ ধনে গুঁড়ো, ১ চা চামচ জিরে গুঁড়ো, দেড় চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১ চা চামচ গরম মশলা গুঁড়ো, ছোলার ডাল, ঝাল বুঝে লঙ্কার গুঁড়ো, ১ টা তেজপাতা, প্রয়োজন অনুযায়ী গরম মশলা গুঁড়ো, ২ চা চামচ টমেটোর সস। তাছাড়া বাটা মশলা তৈরি করার জন্য দুটি পেঁয়াজ, দেড় কোয়া রসুন, লঙ্কা এবং ২ ইঞ্চি আদা একসঙ্গে, স্বাদ অনুযায়ী লবণ এবং পরিমাণ অনুযায়ী সর্ষের তেল

প্রণালি:

প্রথমে ভিজিয়ে রাখুন ছোলার ডাল। এরপর আধ পাকা পেঁপে ভালো করে ধুয়ে নিয়ে কেটে নিন। তারপর কেটে রাখা পেঁপে কুড়িয়ে নিন। আধ পাকা পেঁপে হলে এক্ষেত্রে ধোঁকার স্বাদ ভালো হবে। এরপর আগে থেকে ভিজিয়ে রাখা ছোলার ডালে জলের চিটে দিয়ে বেঁটে নিন। কেটে রাখা পেঁপে এবং আগে থাকে বেঁটে রাখা ছোলার ডাল ভালো করে মাখিয়ে নিন। এরপর এই মিশ্রণটিতে সামান্য নুন এবং হলুদ গুঁড়ো যোগ করুন।

তারপর কড়াইয়ে দিয়ে দিন সর্ষের তেল। তেল গরম হয়ে এলে ছোলার ডাল বাটা এবং পেঁপের মিশ্রণটি দিয়ে ভালো করে নাড়তে শুরু করুন। এক্ষেত্রে ততক্ষন নাড়তে থাকুন যতক্ষণ না কড়াই থেকে মিশ্রণটি কড়াই ছেয়ে আসছে। এরপর নিয়ে নিন একটি থালা। এবার ব্রাশ দিয়ে থালায় তেল বুলিয়ে ঢেলে দিন মিশ্রণটি। মিশ্রণটিকে হাতের সাহায্যে ফ্ল্যাট করে ঠান্ডা করার জন্য পনেরো মিনিট রেখে দিন ফ্রিজে।

এবার ১৫ মিনিট পেরিয়ে গেলে বের করে ধোঁকার আকারে কেটে নিন মিশ্রণটি। তারপর কড়াইয়ে তেল দিয়ে ভেজে নিন ধোঁকাগুলো। এরপর ওই কড়াইতেই সর্ষের তেল দিয়ে ভেজে নিন আগে থেকে কেটে রাখা আলুর টুকরোগুলো। গরম মশলা গুঁড়ো, বাটা মশলা এবং তেজপাতা দিয়ে দিন। মশলাগুলো ভালো করে কিছুক্ষণ কষিয়ে নিয়ে কড়াইয়ে দিয়ে দিন আগে থেকে ভেজে রাখা আলু এবং টমেটো সস। মশলা থেকে তেল ছাড়া পর্যন্ত সবটা ভালো করে কষিয়ে নিন। এরপর কড়াইয়ে উষ্ণ গরম জল দিয়ে দিন। ঝোল ফুটে উঠলে কড়াইয়ে দিয়ে দিন ধোঁকার টুকরোগুলো। এরপর কিছুক্ষণ রান্না করে ওপর দিয়ে গরম মশলা ছড়িয়ে নামিয়ে নিন। ব্যয় তাহলেই তৈরি আপনাদের পেঁপের ধোঁকার ডালনা। খেতে কিন্তু একবারই ধোঁকার মতো।

Ruhi Roy

রুহি রায়, গণ মাধ্যম নিয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাশ। সাংবাদিকতার প্রতি টানে এই পেশায় আসা। বিনোদন ক্ষেত্রে লেখায় বিশেষ আগ্রহী। আমার লেখা আরও পড়তে এখানে ক্লিক করুন।